পাতা:আত্মচরিত (সিগনেট প্রেস) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/১১৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নিজের অন্তরঙ্গ কতিপয় বন্ধর সঙ্গে থাকিতেন। আশ্রমের উপাসনায় তিনি উপস্থিত থাকিতেন বটে, কিন্তু অপরাপর অনেক সময়ে প্রচারকগণের সহিত বসিতেন না। তাঁহারা যখন দশজনে কেশববাবার নিকট বসিয়া কথাবাতা করিতেছেন, তখন হয়তো তিনি তাঁহার প্ৰিয়বন্ধ খ্যাতনামা রাজকৃষ্ণ মখোপাধ্যায়ের ভবনে শয়ন করিয়া তাঁহার মাখে। জ্ঞানের কথা শনিতেছেন। নগেন্দ্রবাবর আর একটা স্নায়বীয় দাবলতা এই ছিল যে, যে-কেহ বিরক্ষািধ ভাবে তাঁহার সমালোচনা করে, তিনি তাহার দিক দিয়া যাইতেন না। আমি দেখিতে লাগিলাম যে, নগেন্দ্রবাবার সহিত প্রচারক BBBBDBB DDBD DDSDDDD DBDLDDL DDBB S DBDD BBBD BBB BDBD বলিতাম, যাঁহাদের সঙ্গে কাজ করিতে আসিয়াছেন, তাঁহাদের সঙ্গ হইতে এরপ দরে থাকা উচিত নয়। কিন্তু বলিলে কি হয় মানষের প্রকৃতিতে যাহা আছে, তাহা कि झूठा प्रकाक्षा या ? তিনি যে একাকী বেড়াইতেন, অনেক সময় গভীর আত্মচিন্তাতে যাপন করিতেন। একদিনের কথা মনে আছে। একদিন আমরা সকলে কাঁকুড়াগাছির বাগানে ভারত আশ্রমে, সায়ংকালীন উপাসনার পর কেশববাবার সহিত নানা প্রকার কথাবাতাতে আছি, এমন সময় কেশববাব জিজ্ঞাসা করিলেন, “নিগেন্দ্র কই ?” অমনি নগেন্দ্রবাবর অন্যসন্ধান হইল। জানা গেল যে তিনি বৈকাল হইতে নিরদেশ আছেন। রান্ত্রি প্রায় ৯টা বাজিয়া গেল, তখন চট্টোপাধ্যায়মহাশয়ের আবিভােব হইল। আমি তাঁহাকে গোপনে ডাকিয়া বলিলাম, “আপনার খোঁজ হইয়াছিল, আপনি কোথায় ছিলেন ?” তিনি বলিলেন, “আজি মনটা বড় খারাপ আছে, তাই তিন-চারি ঘণ্টা মানিকতলার খালের ধারে বেড়াইতেছিলাম ও একটা গান বধিয়া গাইতেছিলাম। এই বলিয়া গানটা গাইয়া আমাকে শনাইলেন। সেটা এই-- আমি কি বলে প্ৰাথনা বল করি আর! আমার সকল কথা ফরাইল, ফিরিল না মন আমার। তুমি দেখ সব থেকে অন্তরে, তোমায় কথায় কে ভুলাতে পারে, প্রাণের প্রাণ, বলব কি আর, কি আর আছে বলিবাের! ওহে, প্ৰাণ যদি চাহে তোমারে, তুমি থাকিতে কি পার দরে ? আপনি এস পাপীর দাবারে, তাই পতিতপােবন নাম তোমার। আমি শনিয়া ভাবিলাম, নগেন্দ্ৰবাব যে সন্ধ্যার সময় আমাদের সঙ্গে না বসিয়া একলা ছিলেন, সে ভালোই হইয়াছে। কিন্তু প্রচারক বন্ধগণ সকল সময়ে সেরাপ ভাবিতে পারিতেন না। তাঁহারা মনে করিতেন, নগেন্দ্র যখন আমাদের সহিত কাজ করিতে আসিয়াছেন, তখন আমরা যেরপে বসি দাঁড়াই, তাঁহাকেও সেইরাপ করিতে হইবে। তাঁহারা দিন-দিন নগেন্দ্রবাবার উপর চটিতে লাগিলেন। ইহা লইয়া তাঁহাদের সহিত আমার বিবাদ হইতে লাগিল। আমি নগেন্দ্ৰবাবর পক্ষ হইয়া তাঁহাদের সহিত তক-বিতক করিতে লাগিলাম। তাঁহারা আমাকে আলস্যের প্রশ্রয়দাতা বলিয়া তিরস্কার করিতে লাগিলেন। নিয়মতািন্ত্র প্রণালী লইয়া মতভেদ । আর একটা বিষয়ে একটি মতভেদ ঘটিল। কেশববােব ইংল্যান্ড হইতে আসিয়া, অপরাপর কাজের আয়োজনের মধ্যে ভারতবষীয় ব্রহয়DDBBB eBBDBBB DDB sBDD DDDDD OBD DDDBBD Bu DDDBDB 9 ܠ ܬ