পাতা:আত্মচরিত (সিগনেট প্রেস) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/৩১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অবস্থাতে তাহাকে এক বাঁশের কেড়ের মধ্যে পরিতাম। এইরূপে ঘণ্টার পর ঘণ্টা। DD DDBD DDDD DDD BBB BBDBDB S BtBDDB DBDBB BB BYS DDBD DBuDuD DBB BDBDSS BD BB DBBDB DDuB DDuB DD DBDBB পাখি পোষা দেখিতে পারিতেন না। পড়ােশানার ব্যাঘাত হয়, ইহা সহিতে পারিতেন । না। পাখির বাচ্চাকে খাওয়াইতে দেখিলেই আমাকে মারিতেন। সতরাং তাঁহার | অনপস্থিতিকালে আমাকে ঐ বাচ্চার মায়ের কাজ করিতে হইত। পিতার হতে এত প্রহরী খাইয়াও কিরাপে আমি তাহাদিগকে পালন করিতাম, তাহা ভাবিলে আশ্চর্য बार्थ शझ । মা আমার পাখি পোষার বড় বিরোধী ছিলেন না। বোধ হয় ছেলে বাড়িতে থাকে এবং একটা কাজে ভুলিয়া থাকে, এই তাঁহার মনের ভাব ছিল। কিন্তু তাঁহায়ও পাখি পোষা শখ ছিল। আমি চলিয়া আসিবার পরও তিনি অনেক পাখি পিষিয়াছেন। আমি যে কেবল পাখির বাচ্চা পষিতাম তাহা নহে, ধাড়ী পাখিও পাষিতাম । বড় পাখি ধরিবার তিন প্রকার কৌশল ছিল। প্রথম, আমাদের উঠানে একটি ধামা খাড়া করিয়া তাহার সম্মখে চাল কড়াই ছড়াইয়া, ধামার পন্ঠে একগাছি বাঁকারির অগ্রভাগ লাগাইয়া, অপর প্রান্ত দাবাতে লাগাইয়া অপেক্ষা করিয়া বসিয়া থাকিতাম। কোনো ঘঘ বা পায়রা বা শালিক যেই আসিয়া একমনে চাল কড়াই খাইত, অমনি বাঁকারির দ্বারা ধামাটি ঠেলিয়া তাহাকে ধামা চাপা দিতাম। দ্বিতীয়; গাছের ডালে যখন পাখিতে পাখিতে ঝগড়া ও মারামারি করিত, তখন তাহার নিচে গিয়া কাপড়ের জাল পাতিতাম। তাহারা মারামারি করিবার সময় রাগে এমন অন্ধ হয় যে, দরজনে জড়ামড়ি করিয়া পাকা ফলটির মতো গাছের তলায় পড়িয়া যায়। কখনো কখনো ঐরাপে আমার কাপড়ে পড়িয়া যাইত। তৃতীয়, টনাটনি দোয়েল প্রভৃতি ক্ষদ্র পাখিরা যখন অন্যমনস্ক ভাবে গাছের ডালে বসিয়া থাকিত, তখন ভোঁ করিয়া তাহার পায়ের নিকটস্থ ডালে সজোরে ঢিল মারিতাম। হঠাৎ তাহদের পায়ের নিকটস্থ ডালে সজোরে ঢ়িল লাগাতে তাহারা দিশেহারা হইয়া পড়িয়া যাইত, আমি আমনি তাহাদিগকে ধরিতাম । DD BBDDD DBB DBBDD BBDDu DDD DDD S BDBD DuuDBDB DBBDB DDD মারিতে পারিতাম। বলা বাহাল্য যে অনেক সময় ডালে ঢিল না লাগিয়া পাখির মাথায় লাগিতা এবং পাখিটির প্রাণ যাইত। এইরপে আমার হস্তে অনেক পাখির প্রাণ গিয়াছে। বলিতে কি, পাকুরে ব্যাঙটি ভাসিতেছে বা গাছে পাখিটি বসিয়া আছে দেখিলেই আমার ঢিল মারিবার প্রবত্তি প্রবল হইয়া উঠিত। শনিলে হয়তো অনেকে হাসিবেন, এই বন্ধ বয়সেও সময় সময় বক্ষশাখায় পাখিটি আছে দেখিয়া আমার ঢ়িল মারিতে ইচ্ছা করে, অমনি হাসিয়া সে ইচ্ছা নিবারণ করি। আমার ঢিল ছোঁড়া বিষয়ে দাইটি ঘটনা স্মরণ আছে। একবার আমার পিতার সহিত , কোথায় যাইতেছিলাম। তখন আমার বয়স ১৩ । ১৪ হইবে। পিতা অগ্নে, আমি পশ্চাতে। আমি পশ্চাৎ হইতে দেখিতে পাইলাম, আমার পিতার সম্পমাখসিথত একটি বক্ষের শাখাতে একটি শালিক পাখি অন্যমনস্ক ভাবে বসিয়া আছে। আর সে প্রলোভন অতিক্ৰম করিতে পারিলাম না। যে পিতাকে যমের মতো ভয় করিতাম । DD BBBS BB BBD BB BDDS D uDuD DBDD DBBD D BuD S পাখিটির কোথায় যে লাগিল তাহা বঝিতে পারিলাম না, কিন্তু পাখিটি পাকা