পাতা:আত্মচরিত (৩য় সংস্করণ) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/৪৫১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ᏱbᏤᎭ ] ' উলিয়াম ষ্টেভ” vost হইল, হাত বাড়াইলাম ; একটা চেয়ারের উপর হইতে একখানা কাপড় তুলিতে ইচ্ছা হইল, তুলিলাম ; আমনি চারি দিকে করতালি ধ্বনি উঠিল। তাড়াতাড়ি চক্ষের বাঁধন খুলিয়া শুনি, সেই গৃহস্থিত পুরুষ ও নারীগণ স্থির করিয়া রাখিয়াছিলেন যে চোখ-বাধা মানুষটি আসিলে তাহা দ্বারা ঐ কাপড়টি তুলাইতে হইবে।; এবং আমি ঘরের ভিতর আসিয়া দাড়াইলে সেই প্ৰকার ইচ্ছা করিতেছিলেন। অবশ্য যে মেয়েটি আমার পশ্চাতে ছিল, সেও ঐ বিষয় জানিত এবং সেও সেই প্রকার ইচ্ছা করিতেছিল। আমি যে বিষয়ে কিছুই জানিতাম না সেরূপ কাজ আমা দ্বারা হইল, ইহা দেখিয়া আমি আশ্চৰ্য্যান্বিত হইয়া গেলাম। ষ্টেড ও র্তাহার পত্নীর নিকট যখন এই কথা ব্যক্ত করিলাম, তখন ষ্টেড সাহেব হাসিয়া বলিলেন, “তাও নাকি হয়! আমাকে কিছু জানতে দেবে না, আর আমার দ্বারা কাজ করিয়ে নেবে, ইহা আমি বিশ্বাস করি না।” আমি বলিলাম, “এসো, আমি ক’রে দেখাই।” তৎপরে, পাশের ঘর হইতে ষ্টেড সাহেবের চোখ বাধিয়া আনা হইল। আমি কঁধে হাত দিয়া পশ্চাতে দাড়াইলাম, কিন্তু তঁাহা দ্বারা যে কাজ কৱাইব স্থির ছিল, তাহাতে কৃততাৰ্য্য হওয়া গেল না। আমি বলিলাম, “তুমি মনটা নিগেটিভ ( negative) করিয়া রাখিতে পার নাই ; আমার ইচ্ছাকে বাধা দিয়ােছ।” তার পর তঁর ঘরের এক কোণে একটা টুপিতে একটা পয়সা রাখিয়া, মিসেস ষ্টেডের চোখ র্বাধিয়া আনিলেন। BDD DBDDB Bu DBD DB KuuLLD SDDBBD S SDBD DBBBBB ঘরের কোণে গেলেন, অবনত হইয়া টুপির মধ্যে হাত দিলেন, কিন্তু পয়সাটি তুলিলেন না। এতটা দেখিয়া ষ্টেড কিঞ্চিৎ বিস্মিত হইলেন। তাহার পর তঁহার এক কন্যার চোখ বাধিয়া আনা হইল। এবার স্থির হইল, সে নির্দিষ্ট একটি জিনিস লইয়া তাহার সর্বকনিষ্ঠ