পাতা:আত্মচরিত (৩য় সংস্করণ) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/৫৪৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


éto8 শিবনাথ শাস্ত্রীর আত্মচারিত fপরিা মাত্রায় ছিল, কিন্তু অন্ধতা ছিল না ; স্বধৰ্ম্মানুরাগ প্রবল ছিল, কিন্তু লরধৰ্ম্মে दिवस छिल ना । ፥ র্তাহার আত্মমৰ্য্যাদা জ্ঞান প্ৰবল ছিল । আমার পিতার আয় কখনই DB DDD BDBB DBBS SBB DBDS DDBD D সুগৃহিণী ছিলেন যে, ইহাতেই পুত্রের শিক্ষা, তিন কন্যার বিবাহ ও ধাৰ্ম্মিক হিন্দু গৃহস্থের ক্রিয়া কৰ্ম্ম সমুদয় নির্বাহ করিয়াছেন। অথচ আমার জ্ঞানে আমি কখনও তঁহাকে নিজ অভাব অপরকে, এমন কি তাহার পিত্ৰালয়ের মানুষকেও জানাইতে, বা কাহারও নিকট দু টাকা ঋণ করিতে দেখি নাই। তিনি আমার পিতাকে সম্পূর্ণ রূপে ঋণহীন রাখিয়া গিয়াছেন। ধৰ্ম্মপরায়ণতা যেন তঁাহার অস্থি মজ্জার মধ্যে নিহিত হইয়াছিল। তৎপরে, বাল্য কালে বিবাহিত হইয়া তিনি যখন আমাদের ভবনে আসিলেন, তখন আসিয়াই অশীতিপর বৃদ্ধ আমার প্রপিতামহ স্বৰ্গীয় রামজয় স্থায়ালঙ্কার মহাশয়ের সেবাতে নিযুক্ত হইতে হইল ; ঐ সাধু পুরুষের সংসর্গে ও উপদেশে মাতার ধৰ্ম্মভাব বহু গুণ বৃদ্ধি পাইল। তিনি তঁহার নিকটে মন্ত্রদীক্ষা গ্ৰহণ করিলেন, এবং দেবতার ন্যায় তাহার সেবা করিতে লাগিলেন। আমার প্রপিতামহ এ লোক হইতে অন্তৰ্হিত হইবার পর পঞ্চাশ বৎসরেরও অধিক কাল মাতা ঠাকুরাণী জীবিত ছিলেন। এই দীর্ঘ কালের মধ্যে র্তাহার স্মৃতি এক দিনের জন্যও আমার মাতার হৃদয়কে পরিত্যাগ করে নাই। তিনি জীবনের শেষ সময় পৰ্য্যন্ত আমার প্ৰপিতামহের জপের মালা লইয়া প্ৰতি দিন জপ করিয়াছেন। শৈশবে আমি এক বার কঠিন রোগ হইতে মুক্ত হইলে তিনি যে হাতে ও মাথাতে ধুনা পোড়াইয়াছিলেন এবং বুক চিরিয়া সেই রক্ত দিয়া ইষ্ট দেবতার স্তব লিখিয়াছিলেন, তাহা পূর্বেই বর্ণিত হইয়াছে।।* w-r

  • २७ १छे] cपथ।