পাতা:আত্মচরিত (৪র্থ সংস্করণ) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/১৮২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


tR শিবনাথ শাস্ত্রীব আত্মচবিত [ ৬ষ্ঠ পবিঃ এমনি তন্মনস্ক । আমাব হস্তপদেব প্ৰত্যেক গতিবিধি লক্ষ্য কবিতেছে। কিয়ৎক্ষণ পাবে আমি যখন বলিলাম, “মা, একটু তেল দাও, নেয়ে আসি।” তখন একটী স্ত্রীলোক বলিযা উঠিল, “মা ঠাকবাণ, কথা কয?” মা বলিলেন, “কথা কবে না কেন ?” শুনিয়া আমাব ভয়ানক হাসি পাইল । ভাবিলাম, আমি যেটা কৰ্ত্তব্যবোধে কবিতেছি, সেটা ইহাদেব নিকট পাগলামি ! শিক্ষাতে কি প্ৰভেদই ঘটাই যাছে। আব্ব একদিন বৈকালে একটা স্বসম্পৰ্কীয়া স্ত্রীলোক আসিযা দেখেন যে আমি মুড়ি খাইতেছি। দেখিয়া বিস্ময়াবিষ্ট হইষা বলিলেন, “ওমা, এই যে মুড়ি খাদ্য , কে বলে আমাদেব মধ্যে নাই ?” তাঙ্গাবা ভাবিযাছিলেন, আমি কিভূতকিমাকাব হইয়া গিয়াছি। যাহা হউক, আমাব বাবা আমাকে মাসাধিক কাল আবদ্ধ কবিয বাখিলেন। এই সমযেব মধ্যে দিবাবাত্ৰ লোকোব সমাগম, ও একই কথা, একই তর্ক, একই যুক্তি, একই আপত্তি, একই গালাগালি। কতই বা তর্ক কবিব, কতই বা উত্তব দিব ? আমি একেবাবে মৌনব্ৰত অবলম্বন কাবিলাম। যিনি যাহ' বলিতেন, বা তিবস্কাব কবিতেন, দ্বিরুক্তি কবিতাম না । শেষে বাবা অব আমাকে আবদ্ধ বাখ্যা বিফল বোধে আমাকে বিদায় দিলেন। সেদিনেব কথা মনে হইলে আব চক্ষেব জল বাখিতে পাবি না । তিনি অতি সহৃদয় মানুষ ছিলেন। DDBB DB DBD DDDD BB KS DD DBBBD LOLBDD সমুদয় জিনিসপত্র দিয়া নিজব্যয়ে আমাকে কলিকাতা পাঠাইলেন। তখন বুঝি নাই, যে আমাকে জন্মেব মত বর্জন কৰিবাৰ জন্য প্রতিজ্ঞারাঢ় হইয়াছেন। সেই অবধি ১৮ কি ১৯ বৎসর আমার মুখদর্শন কবেন নাই, বা আমাৰ সহিত বাক্যালাপ কবেন নাই। পিতৃগৃহ হইতে তাড়িত হওয়া।-আমার পিতা আমাকে গৃহ হইতে বিদায় দিয়া প্ৰতিজ্ঞা করিয়াছিলেন যে, আমার মুখদর্শন করিবেন।