পাতা:আদায়ের ইতিহাস - মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৪২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


O Vf3 S S DDD DDD D DDD g uB DB BB DBDDBD DBD নিজেদের মধ্যে, তারপর নিকুঞ্জ বলিল, “অ, তিষ্টপবাবু, বলি বাড়ী যাবেন নাকি এখন ?” “কোথা আর যাব বলুন ?” “আমাদের সঙ্গে আসুন না, একটু ফুর্তিটুির্তি করা যাক ?” ধীরেন বলিল, “মাইনে পাবার পর আমরা একদিন একটু জমাই, তিষ্টিপবাবু” সত্যেন বলিল, “কাল ছুটিও আছে।” ত্ৰিষ্টপের ভিতরটা জ্বালা করিতেছিল। মানুষের সঙ্গে সে মিশিতে পারে না, সহকমী বন্ধুর সঙ্গে ! সঙ্গীহীন অসহায়ের দুৰ্বোধ্য ভয়টাও পীড়ন করিতেছিল। উগ্ৰ অন্ধ হিংসায় বন্ধু তিনজনকে আঘাত করিতে ইচ্ছা হইতেছিল। সন্ধ্যার বেশী দেরী নাই। টিপি-টিপি বৃষ্টি পড়িতেছে। বর্ষার অতি অমায়িক রূপ ও ব্যবহার। ওরা ফুর্তি করিতে চায়-ফুর্তি ! আজ কি তা’ সম্ভব ? তার পক্ষেও ? নিকুঞ্জ বলিল, “আমরা চাদ করে খরচ দি’ যা খরচ হয়, চারজনে সমান সমান দেব। আসবেন ?” “কত লাগবে ? গোটা দশেক টাকা, আর কতো ?’ দশ টাকা । এক সন্ধ্যার ফুর্তির জন্য দশ টাকা খরচ ! কিন্তু ওরা যদি পারে, সে কোন পরিবে না ? হাজার হাজার টাকা সে একদিন উপার্জন করিবে, দশ টাকা খরচের নামে তার চমক লাগে ? ধিক । 'फ़लून यांई।' পরদিন অনেক বেলায় ত্ৰিষ্টপের ঘুম ভাঙ্গিল একটা অস্থিরতার