প্রধান মেনু খুলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আদিশূত্র [ চতুর্থ অঙ্ক। শান্তি । [ মুখ গম্ভীর করিলেন। ] সনাতন। ও কি! সাহায্যের নাম শুনে তুমি মুখখানা অমান ভার করলে কেন ? শান্তি। কি করি ঠাকুর! বারবার তার জন্য যুদ্ধ করে থানেশ্বর আজ বীরপূন্য ; এখন আমার সৈন্যসংখ্যা কম,--যা আছে, তাও অশিক্ষিত। এ অবস্থায় প্রবলপ্ৰতাপ আদিশূরের বিপক্ষে দাড়াই কি সাহসে ? সনাতন । কি সাহসে কুমারের পিতামহ হৰ্ষবৰ্দ্ধন থানেশ্বর হতে সুদুর বাঙ্গলায় শশাঙ্ককে বিতাড়িত করতে গিয়েছিলেন ? শান্তি। ছেড়ে দাও সে সব পুরাকালের কথা । তার সঙ্গে আমাদের তুলনা হতে পারে না। তাই যদি হবে, তবে সেই হৰ্ষবৰ্দ্ধনের রক্তজাত পুত্র সামান্য একটা সেনাপতির সঙ্গে যুদ্ধ করতে একটা বালকের সাহায্য চেয়ে পাঠান কেন ? সনাতন। এই কি এ ক্ষেত্রের আত্মপ্ৰবোধ হ’লে কুমার ? শান্তি। নয় কি? তখন ছিল উত্থানের কাল, রািজুকে সৰ্প দেখে সবাই আপনা হতে পথ ছেড়ে দিয়েছে। এখন এসেছে পতনের কাল,- DuBZ DB DuSDD DBDSSDBDK BBD D LiB SB DDDSS S SSBBBB স্বয়ং এলেও আজ আর তারও সাধ্য নাই যে সময়ের শ্ৰোত ব্যর্থ করেন। সনাতন । তা হ’লে কি এইরূপ নির্কিনাকারভাবে ব’সে বসে বীরসিংহের পরাজয় দেখবে ? পতন নিকটে, সেই ভয়ে বংশের গৌরব ডুবিয়ে দিয়ে সোধে শক্রিয় পাহুক মাথায় নেবে ? মৃত্য অবধারিত, তা ব’লে কি যেচে যুপকণ্ঠে গলা বাড়িয়ে দেবে ? কুমার! চন্দ্ৰ যতক্ষণ আকাশে থাকে, অক্ষণ আর অন্ধকারের ক্ষুণ্ডি নাই; ভাঙ্গ প্ৰভুত্ব-ষখন পাশাস্কোর আর অস্তিত্বকতে থাকে মা। to )