পাতা:আনন্দ রহো.djvu/৪৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আক—( ইঙ্গিত করণ, ও কেতিয়ালের প্রবেশ ) । যোধা বাইরের দূত মরে নাই, প্রাতঃকালে প্লুত হয়ে যেন খুনী অপরাধীসাব্যস্ত হয় । - বেতা—“তানন্দ রছে । তাiনন্দ রছে।” ! ! ( প্রস্থান ) তাক—এতেই বলে বেতাল । (লহুনার প্রবেশ ) দেখ লছন তোমায় আমি ভালবাসি কিনা বল দেখি । লছ—জাহপনার অনুগ্রহুেতে আমার সকলই । আক—তুমি যা বলেছ অামি তাই শুনেছি সে কথার পরিচয় দেবে বলে ডাকিনি, তোমায় ভাল বাসি কিন পরিচয় দী ও । ( লহ-নিরবে অবস্থান ) | আক—কিন্তু এক বিষয়ে তোমায় অসুখী করেছি—আমি যে তোমায় প্রাণ অপেক্ষ ভাল বাসি এ কথা জানিয়েছি, তুমিও আমি মৰ্ম্মান্তিক ব্যথা পাবে বলে তুমি কার প্রেমে আবদ্ধ জানাওনি তাতে আমি দূঃখিত, আবার আহ্লাদিত এই, যে তোমার যৎকিঞ্চিৎ প্রতারণ। শিক্ষা হলে । নারীর ছলই বল,আজি এই শিক্ষণ দেবার জন্য তোমায় ডেকেছি। এই কথাটি যেন মনে থাকে, আজ স্বাধীন ভাণ্ডার হতে তিন লক্ষ মুদ্র তোমারে মাসিক বরাদ, তাটালিক বাগিচা তোমার জন্য রেখেছি তাজ হতে তুমি তার অধিকারিণী ; তোমার প্রণয়ীকেও অামি ভুলি নাই, আমি জানি যে আমার মত রুদ্ধকে তোমার ন্যায় রূপবতী যুবতী ভাল বেসে তৃপ্তি লাভ করতে পারে না । এখন তুমি সৃাধীন,–কথাটা মনে রেখে নারীর ছলই বল, এমন কি—সতীত্ব ও কথা মাত্র । লহ-আমি জাহাপন ভিন্ন অীর কাকেও জানিন ॥ আক—প্রাণ অত সরল করেন, চল তোমার প্রণয়ীকে দেখাইগে । (প্রস্থান) (নেপথ্যে—“আনন্দ রহে ! আনন্দ রহে ”! !)