পাতা:আনন্দ রহো.djvu/৬৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ন, তামি মনে কত্তেম নারাণসিং তোমার প্রিয়, সেই মিমিত্ত তারে কারাগারে আবদ্ধ করেছিলেন তার পর তার উদ্ধারের উপায় তোমার ছতেই দিই । লছ—যে রাত্রে বন্দি করেন সেই রাত্রে তো আমায় সকল কথাই বলেছেন । আক—আজি হতে তুমি আমার পুত্র-বন্ধু হলে, এইখানে বসে। সেলিম আসছে ; আমি সভায় যাই । ( প্রস্থান ) ( বেতালের প্রবেশ ) বেভা—ওরে শোন শোন এ ছোট ছোড়াট (ছোড়া কি ছুড়ি তা জানিনি ) । “আনন্দ রছে ! আনন্দ রছে" ! ! (প্রস্থান ) লহ-ওম! যেখানে যাই, সেইখানেই কি এই মিন্‌সে । ( সেলিমের প্রবেশ ) সেলি-লহন। আমার অপরাধ নাই, তোমার রূপেরই অপরাধ | লঘুপাপে গুৰুদণ্ড দি ওনা, তোমায় ভাল বেসে আমার প্রাণ না যায়, তুমি যদি আমায় বিবাহ না কর পিতা আমার প্রাণ দণ্ড কৰ্ব্বেন । লহ—সেলিম ! তোমার জন্য যে আমার অন্তরের অন্তর পুড়চে তাকি তুমি জান না ! সেলি-প্রিয়ে ! তুমি আমার রাজ্যেশ্বরী । (স্বগত ) স্ত্রীলোক ভোলাবার কৌশল বিধাত অামায়ই দিয়েছিলেন, তা না হলে অপক্ষপাতি বাদসার নিকট দণ্ড পেতে হতে । লহ–নাথ ! কি ভাবচো ? সেলি—লছন ! তুমি কি আমায় ভাল বাস ? আহ ! এ হেরি-নিন্দিত মারী রত্নটা কি আমার ? লহন বল, যতবার জিজ্ঞাসা করি বল তুমি তামার !