পাতা:আনন্দ রহো.djvu/৮৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


( १७ ) নরকর নিকর কপাল মালা, তর তর ত্রিনয়ন উজল জ্বালা, ঘন ঘোর গরজন, সুর নর কম্পন, শব শিব পদতলে, - - ভালে অনল জ্বলে ; ত্ৰাহি ত্ৰিভূবন প্রলয় ঝলকে ॥ নারা—এ কে গান করে, ওর কাছে আমায় নিয়ে চল,—যমুনা ? যদু-মা ইচ্ছাময়ী ! দাসীর ইচ্ছা বুঝি পূর্ণ কল্যেন, (নারণের নিকট গমন ) । নারা—যমুনা ! ( বেতালের প্রবেশ ) বেত—ওরে এই জল নে, ( পাতায় করিয়া মুখে জল দেওন)। নারা—যমুনা ! মুখের কাছে এসো, একবার ভাল করে দেখি ; (যমুনা তথাকরণ) আমি থাক, বেশ দেখতে পাচি । যমু—ম ! তোমার মনে এই ছিল মা ! এই দেখা হৰে, লহরীমোহন ! কথা কও, কথা কও, এখন আমার প্রাণ ভরেনি, অীর একটী কথা কও ; নারা-রাঙ্গা, রাঙ্গা, স্বৰ্য উঠছে, দেখ যমুনা, নীল ঘোড়া। বেতা—সরে যাই, এখনি “আনন্দ রহো" বলে ফেলবো । যমু—একবার চেয়ে দেখ, মা ইচ্ছাময়ী ! তোমার ইচ্ছায় আমি লহরীমোহনকে আবার পেয়েছি, আমার গান শুনতে তুমি বড় ভাল বাসতে, আমি গান গাইতে গাইতে তোমার সঙ্গে যাচি । গতি । রাগিণী বাছার-ভৈরবী—তাল মধ্যমান। নেচে নেচে চল মা শ্যাম দুজনে তোর সঙ্গে যাবে। দেখবে রাঙ্গা চরণ দুটা বাজবে নুপুর শুনতে পাবে।