প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/১০৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আষাঢ় ১২৮২ | ডারউয়িনের মত। নূতন নূতন জাতির যে চিহ্ন পাওয়া যায়, | তাহ কি আজগবী ? তাহা কি শূন্য হইতে প্রাচ্ছ্বত হইয়াছে? তাহার কি কোন উপাদান কারণ নাই ? যুক্তিকে জিজ্ঞাস কর, তিনি বলেন যে পূৰ্ব্ব পূৰ্ব্ব জাতি হইতেই উত্তরোত্তর জাতির সৃষ্টি হইয়াছে। আমরা ভূয়োদর্শনে কি দে খিতেছি? দুই তিন পুরুষের মধ্যে যত্ন ও শিক্ষার গুণে পারাবত, কুকুর, মেষ প্রভৃতি গৃহপালিত জন্তু ও নানা জাতীয় উদ্ভিদ অনেকাংশে সম্পূর্ণ পৃথক আকার ও গুণ প্রাপ্ত হয়। মানব কেবল উপষোগিতার প্রতি দৃষ্টি রাখিয়া ঈদৃশ অল্প কালের মধ্যে কত না পরিবর্তন করিতে সমর্থ হইতেছেন। পরন্তু মানুষের জ্ঞান বস্তুর প্রকৃতি ও আন্তরিক অবস্থার মৰ্ম্ম ভেদ করিতে সমর্থ নহে ; যে জন্তু বা বৃক্ষাদি যে অংশে তাহার উপযোগী, তিনি সেই জন্তুর ও বৃক্ষাদির সেই অংশের উন্নতি সাধন করিয়া থাকেন। তাছাতেই দুই তিন পুরুষের মধ্যে এত পরিবৰ্ত্তন সংঘটিত হয়। কিন্তু প্রকৃতির কাৰ্য্যপ্রণালী ও ক্ষমতার বিষয় একবার ভাবিয়া দেখা. উচিত। ইহা একটা স্বাভাবিক নিয়ম যে, কোন জীব ও উদ্ভিদের যে অংশটি ও যে গুণটি তাহার নিজের পক্ষে হিতকর, প্রকৃতি সেই অংশ ও সেই গুণের রক্ষণ ও পোষণ করিয়া থাকেন। তাহাতে এই ঘটে যে অপেক্ষাকৃত অধিক গুণসম্পন্ন ও প্রবল জীব বা উদ্ভিদ অধিককাল জীবিত | মানে বিদ্যমান রছিয়াছে তাহারাও অনেক | থাকে এবং সন্তানসন্ততি রাখিয়া যাইতে পারে। এই সংসারে অস্তিত্বের নিমিত্ত | নিরন্তর প্রতিদ্বন্ধিত চলিতেছে। যে অধিক প্রবল ও গুণসম্পন্ন, সেই প্রতিদ্বদ্বীকে পযু দস্ত করিয়া আপনার জন্য স্থান প্রাপ্ত হইতে পারে। যে বলহীন ও নিগুণ, সে এই প্রতিদ্বন্দ্বিতার প্রভাবে ক্রমশঃ নিস্তেজ হইয় পরিশেষে বিলুপ্ত হইয়া যায়। একটা স্থানে নানাজাতীয় বীজ বপন কর; দেখিতে পাইবে যে কয়েক জাতীয় বীজের অস্কুরোদগম পৰ্য্যন্ত হইবে না। যে সকল বীজ অঙ্কুরিত হইবে, তাহার মধ্যে সকল চারা কিছু সমানভাবে বৰ্দ্ধিত হইবে না। তাহার মধ্যে আরার কতকগুলি বেশ হৃষ্টপুষ্ট আর কতক গুলি কৃশ ও নিস্তেজ হইবেক। পরিশেষে দেখিতে পাইৰে ষে, যে সকল জাতীয় বীজ বপন করিয়াছিলে, তাহীর মধ্যে অনেকে বিলুপ্ত হইয়াছে, কতকগুলি নিস্তেজ ভাবে জন্মিতেছে ; কিন্তু আর যে কিয়দংশ বিলক্ষণ সতেজ ভাবে বৰ্দ্ধিত হইতেছে ; পরিণামে তাহারাই জীবিত থাকিয়া সেই স্থান অধিকার করিয়া লইবে। এই নিয়ম সৰ্ব্বত্র ঘটতেছে। প্রতিদ্বন্দ্বিতাপ্রভাবে যেমন ব্যক্তিবিশেষের ধ্বংস, তেমনি জাতিবিশেষেরও অস্তিত্ব লোপ হইতেছে। এমন অনেক জীব ও উদ্ভিদের চিহ্ন ভূগর্ন্তে নিহিত আছে, যাহা বর্তমানে জীবিত নাই। ইহা কি সম্ভব নহে, যে সকল জাতি বৰ্ত্ত


س---- ...

-.