প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/১৪৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ه8دا আৰ্য্যদর্শন । আষাঢ় ১২৮২ । 1थाएरू। भश्९ ठरु श्रेष्ठ अश्शप्त्वज्ञ উৎপত্তি। ইহা হইতে অভিমানের উদ্ভব হয়। অভিমান জন্থিলে পুরুষ মনে করিয়া থাকেন যে আমি অমুক কাৰ্য করিতেছি, সুতরাং আমি কর্তা, এই অভিমানের বশবৰ্ত্তী হইয়া পুরুষ সাংসারিক কার্য্যে লিপ্ত হইয়া থাকে। অহঙ্কার হইতে পঞ্চ তন্মাত্র অর্থাৎ | পৃথিবী, জল, তেজঃ, বায়ু ও আকাশ এই পঞ্চভূতের মূলস্থত্রের সাধারণ নাম পঞ্চ তন্মাত্র, এই পাঁচ প্রকার তন্মাত্র হইতে | উল্লিখিত পদার্থ সকল উৎপন্ন হইয়া ত্রের প্রত্যক্ষ কবিতে পারেন। কিন্তু ইহার স্থল বুদ্ধির অগোচর ও সাধারণ লোকের ইন্দ্রিয়গ্রাহ্য নহে । অহঙ্কার হইতে একাদশ ইন্ড্রিয়েরও উৎ পত্তি। এই একাদশের মধ্যে দশীি বাহোক্রিয়। এই দশটার মধ্যে পাঁচটা কৰ্ম্মেন্দ্রিয়, আর পাঁচটা জ্ঞানেন্দ্রিয়। একাদশ ইন্দ্রিয়ট অন্তরিক্রিয়। ই স্থার নাম মন । ইহা যুগপৎ কৰ্ম্মেন্দ্রিয় ও জ্ঞানেক্রিয়। চক্ষু, কর্ণ, নাসিক, জিহ্বা ও ত্বক এই পাঁচটী জ্ঞানেন্দ্রিয়। বাক্য, হস্তদ্বয়, পদ| স্বয়, অপান, লিঙ্গ এই পাঁচটী কৰ্ম্মেঞ্জিয়। এই একাদশ ইন্দ্রিয় এবং বুদ্ধি ও অহঙ্কার |এই ত্রয়োদশটী স্থানের দ্বারস্বরূপ। বুদ্ধি ! अश्झांद्र७ भन ७ई लिनौ आङाख्द्र * | শাস্ত্রকারের দশটা বাহোজিয়কে দ্বার•ও | দার্থ আর অবশিষ্ট দশটা বাহ্য। সাংখ্য । | তত্ত্বৎ পদার্থের পরমাণুর উৎপত্তি হয়। ] থাকে। যোগিপুরুষেরা এই পঞ্চ তন্মা- | তিনটী আভ্যন্তরিক জ্ঞানোপায়কে দ্বারবানু | স্বরূপ বর্ণনা করিয়া থাকেন। পঞ্চ তন্মাত্র হইতে পঞ্চ স্থল ভূতের উ. স্তব হয়। আকাশ অনন্তদেশব্যাপী, শব্দের সমবায়ি কারণ । আকাশ আশ্রয় করিয়াই সমুদয় শৰ উৎপন্ন হইয়া থাকে। বায়ু, -ত্বক্ ও শ্রবৃদ্ধিাৱা এই পদার্থের | প্রত্যক্ষ হইয়া থাকে। তেজঃ-অগ্নি প্রভৃতি| ইহা ত্বক, শ্রবণ ও চক্ষু এই তিনটা ই- | স্ক্রিয় দ্বারা গ্রাহ্য। জল —শব্দ,স্পর্শ, বর্ণ | এবং রস জলের এই কয়টি গুণ আছে ; { ইহা শ্রবণ, ত্বক, চক্ষু ও রসন এই কয়ে { কটি ইন্দ্রিয়ের গোচর। পৃথিবী :–গন্ধ, [ স্পর্শ, রূপ রস ও শব্দ এই কয়টি পৃথিবীর } গুণ। ইহা শ্রবণ, ত্বক, চক্ষুঃ, রসনা ও | নাসিক এই কয়টি ইঞ্জিয়দ্বারা প্রত্যক্ষীভূ হইয়া থাকে। আত্মা-অৰ্থাৎ পুরুষ । পুরুষ নিজেও { স্থই পদার্থ নহে আর ইহা হইতে অন্য | পদার্থের স্বষ্টিও হয় না। সাংখ্যদিগের | মতে শরীরভেদে আত্মা ভিন্ন ভিন্ন। | আত্মার ক্ষয় নাট, ইহা অবিনাশী ; ইহার } পরিবর্ত নাই । আত্মা জড়পদার্থ নহে, | ইহা জ্ঞানের আধারস্বরূপ । মহর্ষি কপি- } লের মতে উল্লিখিত পদার্থসমূহ ব্যতীত | পদার্থম্ভর নাই। ঈশ্বরসিদ্ধি করিবার } প্রমাণ নাই বলিয়া মহৰ্ষি ঈশ্বরের অস্তিত্ব খণ্ডন করিয়াছেন। তাহ। তাছার প্রথম } অধ্যায়ের ৯২ • স্বত্র হইতে আরম্ভ করিয়া : কয়েকটি সূত্রে নিবদ্ধ আছে । তিনি ব: | যদি ঈশ্বরের অস্তিত্ব স্বীকার করিতে { । |