প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৪৪৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8、W。 S SAASSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSDSSMSSTSS অাৰ্য্যদর্শন । ، ادهلا ۱۹ م) এই গুরুতর ভার তাহারই উপর সন্ন্যস্ত | হন নাই, এবং হামিণ্টনের প্রতি যথোচিত | ছিল । বৎকালে মিল, তাহার ন্যায়দর্শনে । সম্মান প্রদর্শন করিতেও ক্রটু করেন নাই। নি জানিতেন যে অজ্ঞানবশতঃ তিনি i যদি কোন কোন স্থলে লুমিল্টমের প্রক্তি অন্যায় অত্রমণ সুরিয়া গঠিকন, তাহার অসংখ্য শিম্য ও স্তুতিবাদকের অবশ্যই সেই সেই স্থলে তাঙ্গর ভ্রম সংশোধন করিয়া দিবেন। বাস্তবিক ও তাঁহাই ঘটিল। মিলের সমালোচনা প্রচারিত হওয়ার অব্যবহিত পরেই হ্যামিণ্টনের অসংখ্য শিষ্য ও স্তুতিবাদকের মিলের সমালোচনার প্রতিৰাদ করিয়া অসংখ্য প্রস্তাব লিখিলেন । র্তাহারা মিলের যে সকল ভ্রম প্রমাদ দেখাইয়া দিলেন, তাহ সংখ্যার অতি অল্প এবং মূল্যে অতি সামান্য। কিন্তু সংখ্যার অতি অল্প ও মূল্যে অতি সামান্য হইলেও, মিল, দ্বিতীয় সংস্করণকালে সেই সকল ভ্রম প্রমাদের সংশোধন করিয়া দিলেন। যাহা হউক, সব দিক দেখিলে এই সমালোচনায় অনেক কার্য হইয়াছিল বলিতে হইবে। এই সমালোচনায় হ্যামিণ্টনের দর্শনের দুৰ্ব্বলাংশসকল সাধারণ সমক্ষে প্রদশিত হয় ; দার্শনিক জগতে র্তা হার অপ্রতিদ্বন্দ্বি যশ উপযুক্ত সীমায় নিবন্ধ হয় এবং সাধারণ বিতর্কে পদার্থ ও মন সম্বন্ধে দার্শনিক মত সকলের অনিশ্চিততার মীমাংসা হইয়া যায়। হ্যামিণ্টনের সমালোচনা পরিসমাপ্ত অগষ্ট কমটের বিষয় প্রথম উল্লেখ করেন, তপন কটের নাম ফান্সেরও সৰ্ব্বত্র শ্রত হয় নাই। মিল তদীয় ন্যায়দর্শনে কমটের মিত্ৰ উAেকরার পর হইতে, ইংলণ্ডের চিন্তাশীল ব্যক্তিমাত্রই কমুটের পাঠক ও স্তুতিবাদক হইয়া উঠিলেন। যৎকালে মিল উহার বিষয় প্রথম উল্লেখ করেন, তখন তিনি ইংলণ্ডের চিন্তাশীল ব্যক্তিদিগেরও নিকট এতদূর অপরিচিত ছিলেন, যে তদীয় নামের উল্লেখেই তাহারা বিস্মিত হইয়াছিলেন। কিন্তু মিল যখন তাহার পুস্তকের ও তদুপ্তাবিত মতাবলীর সমালোচনা করেন, তখন এরূপ অবস্থা সম্পূর্ণ পরিবর্তিত হইয়াছিল। এ সময়ে তাহার নাম ইউরোপের প্রায় সৰ্ব্বত্র, এবং তদুপ্তাধিত মতাবলী ইউরোপের প্রায় অনেক স্থলেই পরিব্যাপ্ত হইয়া পড়িয়ছিল। কি শক্র কি,মিত্ৰ সকলেই এক বাক্যে তদীয় গভীর চিন্তাশীলতার প্রশংসা না করিয়া থাকিতে পারিলেন না। তিনি যে চিন্তা-বিষয়ে উনবিংশ শতাব্দীর অধিনায়ক, তাহা সকলেই মুক্তকণ্ঠে বলতে লাগিলেন। যে সকল মন গভীর শিক্ষা ও বলবতী প্রবণতা দ্বার পূৰ্ব্বেং প্রস্তুত হইয়া ছিল, সেই সকল মনই তদীয় গভীর চিন্তা সকলের ধারণায় সক্ষম হইল। কিন্তু সেই উৎকৃষ্ট মত গুলির করিয়া মিল, অগষ্ট কমটের মতাবলীর সহিত তদীয় কতকগুলি দূষিত মন্তও সমালোচনায় প্রবৃত্ত হন। নানা কারণে ] সৰ্ব্বত্র সমাদরে গৃহীত হইতে লাগিল।