প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৫২৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ৰজাঘাতে মৃত্যু। (: o so o >スbペい সেই স্থান হইতে যে আলোক বিকীরিত হইয়াছিল, চক্ষু পুত্তলীতে সে আলোক রহিয়াছে। সুতরাং পূৰ্ব্ব স্থানের সহিত বৰ্ত্তমান অবস্থানের অগ্নির মিলন চক্ষু পুত্তলীত হইল এবং এই রূপ পর পর মিলন হইয়া পূৰ্ব্বোক্ত উজ্জল রেখার উপলব্ধি হয়। e যদি বন্দুকের গুলি বেগের দ্রুতভায় কষ্টানুভূতি ব্যতিরেকে জীবন সংহার করিতে সক্ষম হয়; তবে বিদ্যুৎ, যাহার বেগ এত অধিক, উহা অপেক্ষা অধিক সক্ষম। এই সিদ্ধান্ত কেবল যুক্তি হইতে সংগৃহীত নয়,পরীক্ষা দ্বারা প্রমাণীকৃত। অনেক বজ্রাহত ব্যক্তি সংজ্ঞা লাভ করিয়া এই মতের .পক্ষ সমর্থন করিয়াছেন। ইহার মধ্যে কতকগুলির উল্লেখ করা যাইতেছে। ১৭৮৮ খৃষ্টাব্দের ৩• এ জুন জৰ্ম্মনি দেশে কোন স্থানে এক জন সৈনিক পুরুষ পদব্রজে ভ্রমণ করিতেছিলেন। হঠাৎ বৃষ্টি আসায় এক বৃক্ষতলে গমন করিলেন। একটা স্ত্রীলোক র্তাহার পূৰ্ব্বেই সেই বৃক্ষের আশ্রয় লইয়াছিল । সৈনিক পুরুষ মস্তকোত্তোলন করিয়া সেই বৃক্ষ নিবিড়পত্র কি না দেখিতেছিলেন এমন সময় হঠাৎ বজাহত হইয়া পড়িয়া গেলেন। স্ত্রীলোকটী অত্যন্ত সংক্ষোভ প্রাপ্ত হইলেন বটে কিন্তু 9ार्बाणैव যত্নে কয়েক ঘণ্টা পরে সংজ্ঞ? লাভ করিলেন । সংজ্ঞা . লাভ করিয়া বলিলেন যে তিনি মস্তকোত্তোলন করিয়া বৃক্ষের দিকে চাহিয়াছিলেন এই পৰ্য্যন্ত অচৈতন্য হন নাই। সৈনিক পুরুষ স্ত্রী : র্তাহার স্মরণ অাছে ইহার পর যে কি হইয়াছিল তাহার কিছুই জানেন না। প্রোফেসর টিগুলি ও এক দিন শ্রোতৃ মণ্ডলীর সম্মখে বক্তৃতার জন্য প্রস্তুত | হইয়া দাড়াইয়া আছেন। নিকটে ১৫ টী লিডেন জারের একটী ব্যাটারী আছে। অনবধান বশতঃই হউক বা অন্য কোন কারণেই হউক তিনি সেই ব্যাটারি সংক্রান্ত তার স্পর্শ করেন। স্পর্শ করিব মাত্র চেতনা অপস্থত হইল । জীবন ক্ষণকালের জন্য স্থগিত হইল। মুহ, মধ্যেই আবার চেতনা লাভ করি লেন । চেতনা হইবা মাত্র দর্শকদিগকে ভীত হইতে নিষেধ করিলেন এবং বলি- | লেন দৈব ক্রমে এইরূপ তড়িৎ সংক্ষোভ প্রাপ্ত হইবার জন্য তিনি সময়ে সময়ে অত্যন্ত ইচ্ছা করিতেন। তাহার সে ইচ্ছা আজ ফলবতী হইল। তিনি যে সংক্ষোভ পাইয়াছিলেন তাহার স্মৃতি বা অনুভূতি কিছুই ছিল না। কেবল অবস্থা দেখিয়া যুক্তি বলে সেই সংজ্ঞা-শূন্য মুহুর্তের অভাব মনে পূরণ করেন। র্তাহার মান- | সিক সংজ্ঞা লাভ হইতে বিলম্ব হয় নাই | বটে,কিন্তু উহার চাক্ষুষ শিরা সকল এরূপ বিকল হইয়া গিয়াছিল যে তিনি র্তাহার | সমস্ত শরীর খণ্ড বিখণ্ড দেখিতে লাগিলেন। বোধ হইতে লাগিল যে হস্তাদি, অঙ্গ হইতে বিশ্লিষ্ট হইয়া শূন্যে বুলি- | তেছে। ফলতঃ অনেক ক্ষণে সেই শিরা সকল সহজ ও মুস্থ অবস্থায় পরিণত হইল। ] • See Tyndal's Fragments of - Science