প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৬২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


| |


om

বৈশাখ ১২৮২। বঙ্গবামার ধৰ্ম্মনৈতিক অবস্থ। । জন্য আমরা হয় তো তাহাদিগের বীতরাগের ভাজন হইব ; কিন্তু তা বলিয়া কি কুরিব? আমরা যাহা সত্য বলিয়া স্থির করিয়াছি তাহার অপলাপ করা আমাদিগের কখনই অভিপ্রেত০ হইতে পারে না । | সীতাদেবী ষে সতীত্ব ধৰ্ম্মের আদর্শ দেন, সাবিত্রীপ্রদত্ত আদর্শ হইতে তাহ বিভিন্ন । পতির সহিত সীতাদেবী বহুকাল সহবাস কবিয়াছিলেন। রঘুকুলতিলক রামচন্দ্র বহুগুণাধার ছিলেন বলিয়া সীতা | দেবীর নিতান্ত মনোহরণ করিয়াছিলেন। | দুৰ্বত্ত রাবণ র্তাহাকে বলপূৰ্ব্বক হরণ ক| রিয়াছিল। এমত স্থলে সীতাদেবীর মন | স্বভাবতঃ রামচন্দ্রের দিকেই আকৃষ্ট ও | রাবণের দিকে বীতরাগ হইবার সম্পূর্ণ সম্ভা | বনা। সাবিত্রীর দৃষ্টাস্তে এরূপ ঘটে নাই। | সাবিত্রী বড় পতিসংসর্গ করেন নাই। | সত্যবানের গুণেও সাবিত্রীর বশীভূত হই বায় কারণ ছিল না। সাবিত্রীর হৃদয়ে । পতির প্রতি আন্তরিক অনুরাগ ও প্রণয় জন্মিবার কোন কারণ ছিল না। সত্যবান { আবার জীবিত ছিলেন না। তথাপি সত্য. | বানের জন্য সাবিত্রীকে লালায়িত হইতে হইয়াছিল। তথাপি সত্যবান ভিন্ন l आद्र कश्हे उँशत्व ७५श्डाछन इ३{दांब cष नाहै । আমাদিগের অনেক 1 বালিকা বিধবা কখন পতিসংসর্গ করে নাই। প্রণয় কিরূপ তাহারা হয়তে তাহার আসৃদিও প্রাপ্ত হয় নাই। অথচ atহাদিগকে চিরদিন সতী থাকিতে হইবে اساسی =سیسی======== Qへ○ এবং যাহাকে সূপ্নেও মনে পড়ে না সেই পতির জন্য চিরজীবন শোকাৰ্ত্ত হইয়া থাকিতে হইবে। প্রকৃতি যাহা করিতে সন্মত নহে, তাহা তাহাদিগের অবশ। করিতে হইবে। প্রকৃতি যদি না কাদে অবশ্য কাদাইতে হইবে। প্রকৃতি যদি পুরুষসংসর্গ ব্যতীত না থাকিতে পারে, তাহাকে রুগ্ন করাও শ্রেয়, তথাপি ব্যাভি, চার দোষে লিপ্ত হওয়া শ্রেয় নহে। সাবিত্রীর চরিত্রে এই সতীত্বের আদর্শ। সাবিত্রীকে বরং কবি বহুকালের পর সত্যবানের সহিত সম্মিলিত করিয়া দিয়া তদীয় সতীত্ব ধৰ্ম্ম প্রকৃতিসঙ্গত ও সুরক্ষিত করিয়াছেন, কিন্তু বঙ্গীয় বালিকা বিধবার সে আশাও নাই। তাহাকে আজীবন পুরুষ-সংসর্গ বিরহিত হইয়। সতী নাম ক্রয় করিতে হইবে। অতএব পতি জীবিত থাকিতে যেমন অন্য-পুরুষসংসর্গ পরিবর্জন করা আবশ্যক, সংসর্গের পূৰ্ব্বে স্বামী সংস্থিত হইলেও তদ্রুপ পৰিত্ৰ থাকা সতীত্ব ধৰ্ম্মের লক্ষণ। আবার শকুন্তলার দৃষ্টান্তে আমরা দেখিতে পাই যে, যে পুরুষের সহিত একবার সংসর্গ হয়, তিনিই রমণীর পতি এবং সেই পতি স্ত্রী বলিয়া গ্রহণ করুন আর নাই করুন, অন্যকে পতিত্বে বরণ করা নিষিদ্ধ, এবং অন্য পুরুষের সংসর্গ পরিহার করা নিতান্ত আবশ্যক। চিরদিন কেন জীবিত পতির সহিত বিচ্ছেদ ঘটুক না, চিরদিন কেন তৎসহবাস হইতে বিরহিত থাকুক না,তথাপি অপরপুরুষ বঙ্গবামার ---