প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৬৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


{ জ্যৈষ্ঠ ১২৮২ । বঙ্গবামার ধৰ্ম্ম নৈতিক অবস্থা i ৫৫ বিবাহের বন্ধন অলঙ্ঘনীয় এবং যে প্রতিজ্ঞ পলনীয় অন্য জনের পক্ষে তাহা নহে । | পতির সম্বন্ধে বিবাহের নিয়ম পরিবর্তিত { হইতে পারবে, কিন্তু স্ত্রীর সম্বdে নহে। যে বিবাহের এই প্রকার শিথিল ধৰ্ম্ম| নৈতিক বন্ধন তাহাকে কি বাস্তবিক বিবাহ বলা যায়? যে বিবাহ এক পক্ষে | পক্ষপাতী, যে প্রতিজ্ঞ ও নিয়ম দুজনের মধ্যে অনাতরের পক্ষে কেবল প্রযুক্ত হইবে, সে বিবাহ এবং সে প্রতিজ্ঞার কতদূর ধৰ্ম্মবল তাহ অনায়াসেই উপলব্ধ হইতে পারে। যে ধৰ্ম্ম সংস্কার এক পক্ষে ভঙ্গপ্রবণ তাছা অন্য পক্ষে কেন মুদৃঢ় বন্ধন হইবে তাহা বুঝা যায় | না। কিন্তু পক্ষপাতী পুরুষের নিকট | সকলি সম্ভব, ধৰ্ম্মের নিকট নহে। ধৰ্ম্ম * কহিবে যে, যাহা ধৰ্ম্মতঃ ভঙ্গপ্রবণ তাহা কখন আবার ধৰ্ম্মতঃ দৃঢ়বন্ধন হইতে পারে না। অতএব পুরুষের পক্ষ হইতে | দেখিতে গেলেও আমাদিগের বিবাহপদ্ধতির কিছুই ধৰ্ম্মবন্ধন উপলব্ধ হয় না। কারণ যাহা ধৰ্ম্মতঃ শিথিল, তাহ ধৰ্ম্মতঃ অচ্ছেদ্য হইতে পারে না। যে বিবাহের কিছু ধৰ্ম্মনৈতিক বন্ধন নাই সে বিবাহকে কোন মতে ধৰ্ম্মবিবাহ বলা যাইতে পারে না, এবং তাহাতে দম্পতীর অন্যতর | কেহই ধৰ্ম্মতঃ আবদ্ধ নহে। কিন্তু হায়! এই বিবাহের উপর স্ত্রীজাতির সতীত্বধৰ্ম্ম স্থাপিত রহিয়াছে। যিনি ধৰ্ম্মতঃ স্ত্রীর পতি নহেন,তাহাকে অবশ্য র্তাহার পতি বলিয়া i পালন করিতে হইবে। একজনের পক্ষে যে গ্রহণ করিতে হইবে, এবং এই হাস্যকর বিরাহের যাবতীয় প্রতিজ্ঞ কেবল তাহার পক্ষে চিরজীবন পালনীয়। যে বিবাহ ; প্রকৃত বিবাহ নহে, সেই বিবাহনির্দিষ্ট একজন পতি হইল, এবং সেই পতি ভিন্ন অন্য পুরুষের সংসর্গ পরিবজ্জন করা আবার সতীত্বধৰ্ম্ম হইল! অশ্চির্য্য আমাদিগের ধৰ্ম্মজ্ঞান, আশ্চৰ্য্য আমাদিগের কৰ্ম্মকাণ্ড, আশ্চর্ঘ্য আমাদিগের ব্যবস্তা, বিবাহ, সতীত্ব ধৰ্ম্ম, ও আচার ব্যবহার ! পুরুষের পক্ষ হইতে বিচার করিয়া আমাদিগের পরিণয়সংস্কারের কতদূর ধৰ্ম্মনৈতিক বন্ধন তাহ স্পষ্টই প্রতিপন্ন হইল। পূৰ্ব্বে আমরা দেখিয়াছি, স্ত্রীপক্ষ হইতে দেখিলেও বালিকাবিবাহের কিছু ধৰ্ম্মনৈতিক বন্ধন উপলব্ধ হয় না। কি ৷ পুরুষ, কি স্ত্রী, উভয় পক্ষ হইতে বিচার করিয়া যে উদ্বাহ কার্য্যের ধৰ্ম্মবৈধতা প্রতীত হয় না, সেই উদ্বাহ সংস্কারে কেবল অবলাগণকে অতি দৃঢ়বন্ধনে আবদ্ধ করা হয় । কিন্তু বিচার করিতে গেলে প্রতিপন্ন হয়, যে কি স্বপক্ষ, কি | স্বামীপক্ষ, কোন পক্ষের বিচারে আমা দিগের বামাগণের প্রকৃত বিবাহ হয় না । শাস্ত্রপক্ষীয়গণ যদি এই কুট তর্ক উখা পিত করেন, যে পুরুষে তৃতীয় বা চতুর্থ বার বিবাহ করলেও তাহার প্রথম ও | দ্বিতীয় বারের বিবাহ বন্ধন খণ্ডিত হয় না, তৎপুক্ষে আমরা কেবল এই পৰ্য্যস্ত বলিতে পারি যে তাই আশ্চৰ্য্যৰূপে বৈধ করা হই-l -- - . ======== این