পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (চতুর্থ বর্ষ).pdf/৪৮৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সনৎ— না । y পঞ্চগ্রামের জমীদার দেবনাথ রায় চৌধুরী শ্বশুরালয়ে আসিয়াছেন। তিনি শ্বশুরালয়ে আসিয়াছেন না বলিয়া শ্বশুরের বাসগ্রামে আসিয়াছেন : বলিলেই ঠিক হয়। কারণ, স্থানাভাবে দেবনাথের শ্বশুরালয়ে বাস ঘটিয়া: উঠে না । গ্রামে নদীকূলে উচ্চ জমীতে তঁহার তাম্বু পড়িয়াছে। তিনি সেই তাম্বুতে বাস করেন ; কেবল আহারের জন্য শ্বশুরালয়ে গমন করেন। । , দেবনাথের শ্বশুর যদুনাথ ভট্টাচাৰ্য্য দরিদ্র গৃহস্থ ; কিন্তু বড় কুলীন।” আমরা বহুদিন পূর্বের কথা বলিতেছি। তখন বাঙ্গলায় কাঞ্চন-কৌলীন্য প্ৰবৰ্ত্তিত হয় নাই। সমাজে কুলীনের অত্যন্ত সম্মান ছিল, দরিদ্র কুলীন ধনী মৌলিক বা বংশজ বা ভৃঙ্গকে কড়া কথা কহিলেও ধনী তাহা সহ। করিতেন। সেই জন্যই দরিদ্র যদুনাথের কন্যা মহালক্ষ্মী পঞ্চগ্রামের জামীদার রাধানাথ রায় চৌধুরীর পুত্রবধু হইয়াছিলেন। নহিলে যদুনাথের অর্থ বা মহালক্ষ্মীর রূপ ছিল না। তবে তখন কুলগৌরব থাকিলে লোক রূপও : খুজিত না । পুত্রের সহিত মহালক্ষ্মীর বিবাহ দিয়া রাধানাথ বৈবাহিককে বলিয়াছিলেন,--“আমার ইচ্ছা, শ্বশুরবাড়ী দেবনাথের আদর-যত্ন হয়, তাই আমি বলি, আপনার পাকা বাড়ীর ব্যবস্থা করি।” সে কথা শুনিয়া যদুনাথ । বলিয়াছিলেন,--“আপনার প্রস্তাব অতি উত্তম। কিন্তু তাহা হইলে জামাতা । ত আসিয়া আপনার বাড়ীতেই থাকিবেন-তঁাহার শ্বশুরবাড়ী থাকা হইবে । না। আর আমি কেমন করিয়া জামাইবাড়ী বাস করিব ?” ইহার পর । রাধানাথ আর সে কথা তুলেন নাই, পিতার মৃত্যুর পর দেবনাথ কোন দিন । সে কথা তুলিতে সাহস করেন নাই। তিনি দুই একবার পত্নীর নিকট সে কথা । তুলিবার উদ্যোগ করিয়া মহালক্ষ্মীর ভাব দেখিয়া আর অগ্রসর হইতে পারেন।” নাই। প্রধানতঃ সেই জন্যই বিবাহাদি ক্রিয়াকৰ্ম্ম ব্যতীত অন্য কোন সময় । দেবনাথের বড় শ্বশুরালয়ে আগমন হইত না ; শ্বশুরালয়ে আসিলেও তিনি, তাম্বু খাটাইতেন ; কারণ, তাহার সঙ্গে লোক অনেক থাকিত। মহালক্ষ্মী মধ্যে মধ্যে পিত্ৰালয়ে আসিতেন। পিত্ৰালয়ে আসিবার সময় তিনি সঙ্গে । দাস-দাসী আনিতেন না। তবে এবার তিনি যে ভ্রাতুষ্পত্রিীর বিবাহে আসিয়া-- ? ছেন, এবার বিন্দিদাসী নিতান্ত জিদ করিয়া স্ট্রােহর সঙ্গে আসিয়াছে। বিন্দি ।