পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (চতুর্থ বর্ষ).pdf/৫৬৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আখিন, ১৩২৩ ৷ নিমন্ত্রণ-রক্ষা । e8. “কিন্তু এ বেশে কেন ? কি হইয়াছে ?” “আগে একশ্বন কাপড় দাও। আমি সোজা তারকেশ্বর হইতে । আসিতেছি। ' সংক্ষেপে সমস্ত কথা বলিলাম । বন্ধু আমাকে দাড়াইবার অবকাশ । দিলেন না। টানিয়া ভিন্মরে লইয়া চললেন। আমি বলিলাম, ‘আগে কাড়প আনে। ছিঃ এ বেশ অত লোকের / artico-o কে সে কথায় কাণ দেয়। নিষ্ঠৱ বন্ধু একেবারে সভামধ্যে আমায় হাজির করিলেন। বন্ধুর কণ্ঠস্বর আবেগে কম্পিত হইতেছিল। সকলের সম্মুখে বন্যার শোচনীয় কাহিনীর বর্ণনা সংক্ষেপে শেষ করিয়া তিনি বলিলেন, “আজ আমার বন্ধুর ব্যবহারে আমি স্বৰ্গসুখ অনুভব করিতেছি, এমন কখনও করি নাই।” ” বন্ধুর পিতৃদেব আমাকে সস্নেহে আলিঙ্গন করিলেন। বহু সন্ত্রান্ত অতিথি । নগ্নবেশ সুরেশচন্দ্রের সহিত করমর্দনে কুষ্ঠিত হইলেন না। সকলের তি প্রশংসমান উজ্জল দৃষ্টি আমি সহ করিতে পারিলাম না। ’ সেই সভামণ্ডপে তখনই আড়াই হাজার টাকা চান্দা স্বাক্ষরিত হইল । সেই টাকা লইয়া আমাকে ‘রিলিফ কেন্দ্ৰে' পুনরায় দুই তিন দিন পরে যাই । বার জন্য অনেকেই অনুরোধ করিলেন। এমন সময় একটি চারুবেশ পরিহিতা নয়। বৎসরের বালিকা আসিয়া বলিল, tE DBDDD DBBBD DD BD CBBDS DBD LBBB DDB দেখিতে চাহেন ৷” বন্ধুর নয়ন যুগলে আনন্দের জ্যোতি উজ্জ্বল হইয়া উঠিল। তখন বেশ পরিবর্তন করিয়াছি। অন্তঃপুরের প্রাঙ্গণে নত নেত্ৰে আমি । দাড়াইলাম। বন্ধুর মাতা আসিয়া আমায় আশীৰ্বাদ করিলেন, “সার্থক । তোমার মা তোমায় গৰ্ভে ধরিয়াছিলেন।” কৰ্ত্তব্য পালন করিয়া এত কি প্রশংসার কাৰ্য্য করিয়াছি ? চারিদিক - হইতে নারীকণ্ঠের অজস্র প্রশংসা-কুজন কৰ্ণে প্রবেশ করিতেছিল। ওয়াটারলু যা যুদ্ধজয়ী বীরপুরুষ এত আনন্দ পাইয়াছিলেন কি ? শ্ৰীসরোজনাথ ঘোষ। .