পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (চতুর্থ বর্ষ).pdf/৫৬৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আশ্বিন, ১৩২৫ নীলা। . ৫২৯ আজ কাশী ছাড়িয়া এই লোকটি এক আসিয়া ব্যাসকাশীর পরপারে বসিয়া আছে। লোকটি বোধ হয় পেচক-স্বভাব।” আর একজন বলিল, “কাহার জীবনে কি ঘটনায় কি হয়, তাহা বলা যায় না। লোকটির আজ এই বিরলে বসিয়া থাকিবার কারণ অবশ্যই আছে।’ - “কারণ ব্যতীত কাৰ্য্য হয় না। এ সত্য তোমাত্ব অনেক পূর্বে অনেকে, প্ৰকাশ করিয়া গিয়াছেন। কিন্তু কারণটা কি ?’ “তাহা কে বলিবে ?” নৌকা চলিয়া গেল। - 赛 ( R ) বাস্তবিকই সারদাচরণের জীবনে যে ঘটনা ঘটিয়াছিল, তাহা যেমন । বিস্ময়কর ও অপ্ৰত্যাশিত, তেমনই করুণ ও বেদনাদায়ক । সারদাচরণ কলিকাতা হাইকোর্টের একজন প্ৰসিদ্ধ উকীল ছিলেন। লোক এমনও বলিত, এবার হাইকোর্টে উকীল-জজের পদ খালি হইলে সে পদ তিনিই।” পাইবেন । তাহাতে র্তাহার আর্থিক ক্ষতির কথা তুলিয়া আলোচনা कत्रिं ब्र সময় উকীল-লাইব্রেরীর নিষ্কৰ্ম্ম উকীলরা বলিতেন, “টাকা লইয়া সারদাচরণ কি করিবেন ? তিনি বিপত্নীক, সংসুরে তাহার থাকিবার মধ্যে এক সে কন্যাও বিবাহিতা ; আর, তিনি যে টাকা করিয়াছেন, তাহা বড় অল্প OuODDS SBDDS SDDS SLLLS S SKS BBBS DD SBK DDBD দাড়াইয়াছে, তাহাতে র্তাহার। আর ওকালতী বা জজীয়তী না করিলেও ২ চলে।” এ অবস্থায় যে ভঁাহার পক্ষে টাকার মায়ায় উকীল থাকিয়া জজীয়তীয় সম্মান ত্যাগ করা সঙ্গত নহে, এ বিষয়ে তাহার সহকৰ্ম্মীরা একবাক্যে একতরফা ডিক্ৰী দিতেন। এই কয়লার খনিতেই কিন্তু সারদাচরণের সর্বনাশ হইয়াছিল। জামাতা নরেশচন্দ্র সসম্মানে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষায়ু উত্তীর্ণ হইলে সারদাচরণ র্তাহাকেখনির কায শিখিবার জন্য য়ুরোপে পাঠান। সে-ই তঁহার সমস্ত সম্পত্তি । পাইবে। কয়লার খনিতে আশাতিরিক্ত লাভ পাইয়া সারদাচরণ নিকটবৰ্ত্তীৰ্ণ । আরও দুইটি খনি কিনিয়াছিলেন। জামাতা কায শিখিয়া औनिया ५निद्र তত্ত্বাবধান করিবে, ইহাই তাহার অভিপ্রেত ছিল। জামাতা ফিরিয়া না আসা পৰ্য্যন্ত তিনি মাসিক এক হাজার টাকা বেতনে একজন য়ুরোপীয়ান ইঞ্জিনিয়ারকে ম্যানেজার রাখিয়াছিলেন। NOVO is