পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (তৃতীয় বর্ষ).pdf/২১৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আৰ্যাবৰ্ত্ত । ৩য় বর্ষ-৩য় সংখ্যা । অঙ্গের মধ্য দিয়া সঞ্চালিত হইবার সময় তত্রস্থ জীবাণুগুলিকে বিনষ্ট করিতে সমর্থ হাঁটবোঁ । উক্ত আলোচনা হইতে ইহা সহজেই বোধগম্য হইবে যে, নিরন্থ উপবাস শুধু উপবাস অপেক্ষাও হিতকর । কারণ, আহাৰ্য্য ত্যাগ করিয়া 'যদি প্রচার জল গ্ৰহণ করা যায়, তাহা হইলে রক্তের পরিমাণ বিশেষ কমিবে না। উহার ফলে রক্ত ও রসের মধ্যে যে দ্রব্যা-বিনিময় তাহ সাধারণ মাত্রা অপেক্ষা অধিক হইলেও যথেষ্ট মাত্রায় অধিক হইবে না । উক্ত আলোচনা হইতে ইহাও বোধগম্য হইবে যে, আহার গ্ৰহণ করিয়াও যদি জলগ্ৰহণ হইতে বিরত থাকা যায়, কিম্বা পানীয় জলের মাত্ৰা মাঝে মাঝে বহুল পরিমাণে কমাইয়া দেওয়া হয়, অর্থাৎ মাঝে মাঝে শুধু পানীয় জলের উপবাস দেওয়া হয়, তাহা হইলেও রস হইতে রক্তের দিকে প্রবাহ বৃদ্ধির পক্ষে প্রভূত সাহায্য করা হইবে ; কারণ রক্ত সময় মত পাকযন্ত্র হইতে যথেষ্ট পরিমাণ জল না পাইলে ব্লস টানিয়া বাহির করিবে এবং তা হাতে রক্তের জীবাণনাশক শক্তি অনেক বাড়িয়া যাইবে । অতএব অমাবস্যা প্রভৃতির উপবাসদ্বারা লোক কেন যে সুফল পায়, তাহার কারণ বুঝা যাইতেছে। লোক যে শরীরে জরভাব হইলে কিম্বা জ্বরের পর লঘুপাচ্য অন্ন পথ্য না দিয়া দুষ্পাচ্য রুট থাইতে দেয়, এই নূতন হিসাবে দেখিলে তাহারও কারণ সহজে উপলব্ধ হইবে। উহার প্রথম কারণ এই যে, ভাতে প্রচুর পরিমাণে জল থাকে, কিন্তু রুটীতে অতি অল্পমাত্র জল থাকে। উহার দ্বিতীয় কারণ এই যে, কোন ব্যক্তি যে খাদ্য থাইতে অধিক অভ্যস্ত, সে সেই খাদ্য সহজে পরিপাক করিতে পারে নৃতম খাদ্য অত সহজে পরিপাক করিতে পারে না । অতএব জ্বর প্রভাবাপন্ন কোন ব্যক্তিকে ভাত খাইতে দিলে সে সত্বরই উহার জলভাগ ও অন্যভাগ গ্রহণ করিয়া রক্তের পরিমাণ বৃদ্ধি করিয়া তুলিবে এবং তাঁহা? ফলে রসের রক্তের দিকে আসিবার চেষ্টা অতি नई दक द३भू! शांईg । শ্ৰীনিবারণচন্দ্ৰ ভট্টাচাৰ্য্য।