পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/১২৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


àY) O * আৰ্য্যাবৰ্ত্ত । >ሻ ቐቕ- Sጃ ፵፫ግi ክ প্রহরীর শিক্ষা হইল ; বালক উপকৃত হইল। দুই একজন কণাকণি করিল,- এইত রাজা। ইহার পর রাজা আবার নগরপালের বিচারে প্রবৃত্ত হইলেন। তিনি নগরপালকে পুনরায় জিজ্ঞাসা করিলেন, “তোমার স্বপক্ষে কিছু বলিবার আছে ? নগরপাল কোন উত্তর দিতে পারিলেন না । রাজা বলিলেন, “এ বিচারে তিনটি বিষয় বিবেচ্য-প্ৰথম, আমার কৰ্ত্তব্য ; দ্বিতীয়, নগরপালের কৰ্ত্তব্য ; তৃতীয়, শাস্তি। যে কৰ্ম্মচারী নির্দিষ্ট নিয়ম পালন করে না, পরন্তু স্বাধিকারপ্ৰমত্ত হইয়া কৰ্ত্তব্যে অবহেলা করে, তাহাকে সে কাৰ্য্যের অনুপযুক্ত জানিয়া আর সে কাৰ্য্যে না রাখাই আমার কৰ্ত্তব্য। সেই কৰ্ত্তব্যপালন করিতে ইচ্ছক হইয়া আমি নগরপালকে কৰ্ম্মচ্যুত করিলাম। নগরপালের অনবধানতায় যথাকলে অগ্নিনির্বাপণের কোন ব্যবস্থা হয় নাই-তাহাতে নগরবাসীরা ক্ষতিগ্ৰন্ত হইয়াছে। যথাকলে অগ্নিনির্বাপণের চেষ্টা হইলে এত ক্ষতি হইত না । সেই ক্ষতিপূৱণ নগরপালের কৰ্ত্তব্য। সুতরাং আমি আদেশ করিতেছি, রাজকোষ হইতে ক্ষতিগ্ৰস্তগণের অৰ্দ্ধেক ক্ষতি পূৱণ হইবে, অপরাদ্ধ নগরপালকে हिङ ठूद्देcद् ।” শুনিয়া নগরপাল বসিয়া পড়িলেন। তাঁহার মুখে আর কথা সরিল না । কিন্তু এই কথা শুনিয়া আনন্দে বহু কণ্ঠ হইতে জয়ধ্বনি উখিত হইল। সে কোলাহল নিবৃত্ত হইলে রাজা বলিলেন, “আমি নগরপালের শাস্তির কোন বাবস্থা করিব না, কারণ, এ বিষয়ে আমিও দোষী। এত দিন নগরপালের কাৰ্য্যের উপযুক্ত তত্ত্বাবধানের ব্যবস্থা না করায় আমার পক্ষে কৰ্ত্তব্যের অবহেলা হইয়াছে। সুতরাং আমি তাহকে শাস্তি দিবার উপযুক্ত নাহি। বিপুল জয়ধ্বনির মধ্যে বিচারকাৰ্য্য শেষ হইল। রাজা উঠিয়া প্ৰস্থান করিলেন। উৰ্দ্ধে প্ৰস্তরপ্রাচীরের পশ্চাতে পুনরায় অলঙ্কারশিজন শ্রুত হইল। দীর্ঘশ্বাস ত্যাগ করিয়া রাণী উঠিলেন। তঁহার মুখে বিষাদ ও আনন্দ ছায়ালোকের মত শোভা পাইতে লাগিল ।