পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/২০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


it, yo) চিত্রকর। ల এই অরণ্যে আমি নবাগত, কি উপায়ে আপনার অস্তিত্ব জ্ঞাপন করিবআপনার স্থান করিয়া লইব ? জীবন-সংগ্রামে জয়ী হইবার আশা ত্যাগ করিলাম ; কিন্তু শ্ৰান্ত দেহের শেষ শক্তি পৰ্য্যন্ত ব্যয় করিয়া বঁচিব কি छ9iादन ? शब्र -छ6भी ! शब्र-छूर्किन.! "ཤུལམ། ই দুশ্চিন্তায় কয় মাসুকোটিল। :-লোকে জিজ্ঞাসা করিলে বলিতাম, “একরূপ হইতেছে। নিরাশ হইবার ‘ কারণ নাই।” কিন্তু এই মিথ্যায় অপরকে প্ৰতারিত করিলে ও আপনাকে প্ৰতারিত করিব কেমন করিয়া ? অবস্থা এমনই শোচনীয় যে, উপাৰ্জিত টাকায় গাড়ীভাড়াও কুলাইত না । “তৃতীয় মাসের শেষে একটি অসাধারণ মোকৰ্দমা উপস্থিত হইল। একজন চিত্রকর চৌৰ্য্যাপরাধে বিচারার্থ আদালতে আনীত হইল। ঘটনাটি কিছু নূতন ধরণের। চিত্রকর যুবক একখানি চিত্র অঙ্কিত করিয়া প্রদর্শনীতে প্ৰদৰ্শিত করিয়াছিল। চিত্ৰখানি মনোরম ;-শকুন্তলা আম্রবৃক্ষে ভরা দিয়া শ্ৰান্ত ভাবে দাড়াইয়া আছেন । চিত্ৰখানি বিশেষ প্ৰশংসিত হয় । একজন সৌখীন ধনী সে চিত্ৰখানি ক্ৰয় করেন। তাহার পর সেই ধনীর • গৃহে যে কক্ষে সেই চিত্ৰখানি বিলম্বিত ছিল, নিশীথে সেই কক্ষে চিত্রকর যুবককে পাওয়া যায়। “গৃহে সকলে যখন নিদ্রালাভের জন্য শয্যায় আশ্ৰয় লইয়াছে, খানসামা BDBDBDDD BDBDBDB BDDDD BBLS DBDD DBDBDDD BBDD BBBBDDD প্ৰজালিত হইল দেখিয়া একজন জাগ্ৰত ভূত্য বিস্মিত হয় । তাহার পর সে আর কয়জন ভৃত্যকে জাগাইয়া বৈঠকখানায় যাইয়া দেখে, চিত্রকর যুবক যেন কিসের সন্ধান করিতেছে । সে কেন গোপনে তথায় আসিয়াছিল তাহার কোন সন্তোষজনক উত্তর দিতে পারে নাই । সরকার যখন চোর বলিয়া তাহাকে পুলিশে দেয় সে তখন ও কোন আপত্তি করে নাই । তাহার মুখে বাক্য যুক্তি হয় নাই। সে নতমস্তকে সব অপমান সহিয়াছে ; মুখ তুলিতে পারে নাই। “আমি চিত্র প্রদর্শনীতে সে চিত্ৰখানি দেখিয়াছিলাম, দেখিয়া মুগ্ধ হইয়াছিলাম। কিন্তু চিত্ৰখানি অনেক দামে বিকায়, তাই কিনিতে পারি নাই। আমি চিত্রকর যুবককে আনাইয়া আমার পরলোকগত পিতৃদেবের প্ৰতিকৃতি অঙ্কিত করাইয়া লইয়াছিলাম । সে চিত্ৰ তোমরা দেখিয়াছ ।” কবি বন্ধু বলিলেন, “সে চিত্র ত অতি সুন্দর।”