পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/২৯৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২৭৮ - আৰ্য্যাবৰ্ত্ত। ১ম বর্ধ-৪র্থসংখ্যা। LBDBDB BB DBD DBDBS SYEEYLBuBDBDBDBD DDB BDB DDDDS তেছেন। এই স্থানে দাড়াইলে বারাণসীর অস্তরের আভাস পাওয়া যায়। এই স্থানে লোক বিচার-বিবেচনার অতীত শাস্তির সন্ধানে ব্যস্ত। ইহাৱা ধৰ্ম্মচিন্তার বিশুদ্ধ নীল আকাশে । উদ্ভটীন হয়-ধৰ্ম্ম-অনুষ্ঠানের কর্দনে লুটায়। DDBDB D S DDDD DDBBDDBBDBDB uBD DBBB BDBD DBDDDDBBB DBBDBBD গুণ। ভারতবাসীদিগের দেবতারা যেন তাহাদিগের পরিবারভুক্ত-একান্ত প্রিয়। যখন পুজার পর প্রতিমা বিসর্জন হয়, তখন নাকি পুরাঙ্গনাগণের হৃদয় শূন্য হয় -যেন তাহারা সন্তানবিয়োগশোকে কাতরা । হিন্দুর এই স্নেহপ্ৰেমভক্তিপুত দেবগ্ৰীতি অন্যধৰ্ম্মাবলম্বীর পক্ষে সম্যক্‌ বুঝিতে পারা সহজ নহে, হইতে পারে না ; কারণ, ধৰ্ম্ম হিন্দুর সমাজের-পরিবারের—জীবনের অঙ্গীভুত। ধৰ্ম্মকে এমন করিয়া আর কে আপনার করিয়াছে ? ७लांबड। দর্শন । डांड्य । পাশ্চাত্য সভ্যতার অভু্যুদয়ের বহু পূর্বে হিন্দুধৰ্ম্ম মানবাত্মা সম্বন্ধে যে নিগুঢ় তত্ত্ব জগৎ সমক্ষে প্রচার করিয়াছিল, বেদান্তে যাহার দার্শনিক বিশ্লেষণ ও সমালোচন ভারতীয় প্রাচীন সনাতন ধৰ্ম্মকে জ্ঞানে প্রতিষ্ঠিত করিয়াছিল, তাহারই অংশবিশেষের ক্ষীণ প্ৰতিধ্বনি বহু শত বৎসর পরে (খৃষ্টপূর্ব ষষ্ঠ শতাব্দীতে) গ্রীসে পিথাগোরাস ( ও তৎপরে প্লেটাে) প্ৰবৰ্ত্তিত আত্মার জন্মান্তরিবাদে শ্রুত হইয়াছিল। তৎপরে খৃষ্টের নবধৰ্ম্মবন্যায়। য়ুরোপের সমস্ত পুরাতন ধৰ্ম্মপ্ৰথা একে একে ভাসিয়া গেল। তখন পিথাগোরাস-প্রমুখ দার্শনিকগণের আত্মাসম্বদ্বীয় মত পরবৰ্ত্তিগণের নিকট কুসংস্কারাচ্ছন্ন যুগের ভ্ৰমপূৰ্ণ বিশ্বাস বলিয়া পরিগণিত হইল। কিন্তু এই নবীন ধৰ্ম্মের প্রভাব যতই বিস্তৃত হইতে লাগিল, ততই যেন ইহা জ্ঞানসম্পর্কশূন্য হইয়া পড়িতে লাগিল। এক কালে এই অজ্ঞানরাশিসস্তুত নানা কু-প্ৰথা পাশ্চাত্য জাতিসমূহকে বিবেকহীন পশুবৎ করিয়া তুলিয়াছিল। ফলে-লুথারকৃত ধৰ্ম্মসংস্কার। এই মহাত্মাই DBBLgB DDBBDB BDBDDBDB BD DDDD DDBBD D DBDBD DDBBDD DBB B C জ্ঞানের অবিচ্ছিন্ন সম্বন্ধ খৃষ্টীয় জাতিসমূহকে বুঝাইয়া দিলেন। কিন্তু ইহার অব্যবহিত BB BDDB DtL DLt gBD BB TB BDDDBBS DuBD KBB DDD S SD DBDS সংক্রান্ততত্ত্বসমূহ ক্ষুদ্র মানববুদ্ধির অগোচর ; অতএব ধৰ্ম্মের সহিত জ্ঞান সম্পকিত হইবার BDBB BDBB DDD SS DB SBHLBDBDBD BD D DDBBD DBDDBDB S Dt DDB অযোগ্য হইলেও তাহা স্বতঃসিদ্ধ সত্য বলিয়া নির্বিচারে গ্ৰহণ করিতে হইবে । কিন্তু বৰ্ত্তমান বৈজ্ঞানিক যুগে য়ুরোপ এইরূপ সিদ্ধান্তে সন্তুষ্ট হইয়া থাকিতে পারিতেছে না। আর হিন্দুধর্গের সহিত সংঘাত এই চঞ্চলতা আরও বৃদ্ধি করিয়াছে। এখন চারিদিকে