পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/৩৫৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভাদ্র, ১৬১৭ । সমালোচনা। \ტტჭა সমালোচনা ৷ -0-8-0- প্রেম ও প্রকৃতি ইিঞ্জ আমেরিকান কবি পো বলিয়াছিলেন, কবিতা দীর্ঘ হয় না-হইতে পারে না। পে স্বয়ং গীতিকবিতার রচনায় প্ৰসিদ্ধিলাভ করিয়াছিলেন। তাহার উক্তির অর্থ এই যে, কবিতা দীর্ঘ হইলে তাহাতে সর্বত্র সমান উৎকর্ষ থাকে না । আবার দীর্ঘ কবিতা-মহাকাব্য শ্রোতৃবর্গের জন্য রচিত হইত ; অবসরের অভাবে বিপন্ন পাঠকদিগের পক্ষে।-এই পুস্তকবাহুল্যের দিনে মহাকাব্য পাঠ ও তাহার রস উপভোগ দুষ্কর। কাৰ্য্য। বিশেষ সময় সময় লোক মহাকাব্যের-দীর্ঘ কবিতার বহুল্যে বিব্রত হইয়া পড়ে। তখন ক্ষুদ্র কবিতার সমাদর অবশ্যম্ভাবী। ইংরাজী সাহিত্যে টেনিসনের অসাধারণ সমাদরের ইহাও অন্যতম কারণ। বাঙ্গালা সাহিত্যেও এরূপ দৃষ্টান্তের অভাব নাই। বৈষ্ণব কবিদিগের পদাবলী একদিন বাঙ্গালীকে মাতাইয়া তুলিয়াছিল। তাহার পর-নব্য বঙ্গে যখন মধুসুদন, হেমচন্দ্র ও নবীনচন্দ্র দীর্ঘ কবিতায় বাঙ্গালীর জীবনের নূতন ভাব বিকশিত করিতেছিলেন-সেই সময় রবীন্দ্ৰনাথ বুঝিয়াছিলেন-এখন সজ্যিক্ষপ্ত না হইলে সাফল্যBD BB DDS SBDuSSkDDiBDBS DBBB DuDDi BB DDB কবিকুঞ্জে দেখা দিলেন। তাহার পর “কড়ি ও কোমল”, “মানসী’ ও ‘সোনার তরী”-গীতি-কবিতার রাজ্যে যে সৌন্দৰ্য্য সৃষ্টি করিয়াছে, তাহা বাঙ্গালীর নিকট সমাদরলাভে বঞ্চিত হয় নাই। কিন্তু দীর্ঘ কবিতা যে সর্বত্রই বিরক্তিকর-দীর্ঘ কবিতার যুগ যে অতীত DDBDiiYiBDBD DD DD DS S DBBBD DBBD BBDB DBB করিয়া তুলে, তাহার সমাদর অবশ্যম্ভাবী। কবি কিটস সত্যই বলিয়াছেন,- যাহা সুন্দর, তাহ নিত্য আনন্দের। বাল্মীকির “রামায়ণ’, হোমরের ‘ইলিয়ড', YS LLL LL LsTTSTDBLBBBK LLL LgBDS S BBDDSSLDSDtLLtBB S হইতে শ্ৰীগুরুদাস চট্টোপাধ্যায় কর্তৃক প্ৰকাশিত। মুল্য বার আনা।