পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/৪০৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SAAA ASA SEESEKSAeASeSeE S SeeeSSSSSSS SJSEeSSASLSSASAeAe EEESSS S SS :్ళ : " - "بهجت عنه." - : : خير * " n · ̈ ..ዃዴ .-ጃ፡ፇ• : • ጊ፡ ፰፥ . "2, .i. v. I' ... - . . . . . . . . . ۔۔۔ ۔ ...." . - ... ... ;'. . . ܝܪ܇ “r ::: ."י الج - " . *" WT . : . . . :: ': . . . - - -- y . " I . . . . . . • • •*ኅ.. . - . . . 晶** . . . . . .S. نس R . . F、 ܊܀ܝ : ". .

  • কি রামায়ণে তাহার আভাস পাওয়া যায় না। সে যাহাই হউক, অনাৰ্য্যগণের - : এই পৈশাচী ভাষার ব্যবহার করিলে ইবল অনাৰ্য্য প্ৰতিপন্ন হইবে এবং অনাৰ্য্য । ভাষানভিজ্ঞ ব্ৰাহ্মণের। তাহার কথার মৰ্ম্ম বুঝিতে পরিবে না, ইহা চিন্তা করিয়াই । সে ব্ৰাহ্মণ সাজিয়া সংস্কৃত কথা বলিয়া ব্ৰাহ্মণদিগকে মোহিত ও স্বীকাৰ্য্য সাধিত । ঠু করিত। ; অন্যত্র হনুমান অশোকবনে সীতাকে দর্শন করিয়া মনে মনে চিন্তা করিতেছেন “এখন কি ভাষায় সীতার সহিত আলাপ করিতে হইবে।” তাহার চিন্তা হইল - 3 যদি বাচং বদিষ্যামি দ্বিজাতিরিব সংস্কৃতাম । ; : BBB BDOBBD DD BD BBD DBDDDS S S BDDYYSSS gKH

যদি ব্ৰাহ্মণের ন্যায় সংস্কতে কথা বলি, তবে আমাকে নিশ্চয় মায়ারূপী রাবণ বলিয়া সীতা ভীত হইবেন। সুতরাং অনেক চিন্তার পর হনুমান স্থির করিলেন :- বাচঞ্চোন্দাহরিষ্যামি মানুষী মিহ সংস্কৃতাং ৷ সুন্দরা । ৩০১৭ মানুষী সংস্কৃতে সীতার সহিত কথোপকথন করিতে হইবে। : উপরি উদ্ধৃত অংশ হইতে পূৰ্বেদ্ধত নিরুক্ত-পরিশিষ্ট ভায্যের সমর্থন দ্বারা যে আমরা দেবভাষা ও মনুষ্য ভাষার উল্লেখ করিয়া আসিয়াছি, তাহার অস্তিত্ব সুস্পষ্ট সংপ্ৰমাণ হইতেছে। নিরুক্তি-পরিশিষ্ট ভায্যে যাহাকে দেবভাষা বলা হইয়াছে রামায়ণে তাহাকেই ব্ৰাহ্মণ কথিত সংস্কৃত ভাষা বলা হইয়াছে। নিরু ক্তের মানুষ ভাষা রামায়ণেও মানুষ ভাষা নামেই পরিচিত রহিয়াছে দেখা যাইতেছে। এখন এই মানুষ ভাষা কি এবং তাহার প্রকৃতি কিরূপ ছিল, তাহার সম্বন্ধে একটু আলোচনা করা যাউক । যাহারা হনুমানকে লাঙ্গুলধারী মৰ্কট বলিয়া কল্পনা করেন তাহারা বলিবেন, সীতা বানরের কথা বুঝিতে পরিবেন না বলিয়া হনুমান মানুষের ভাষায় কথা বলিতে সঙ্কল্প করিয়াছিল। এইরূপ কল্পনা তঁহাদের পক্ষে অত্যন্ত স্বাভাবিক বলিয়া আমরা প্রথমেই নিরুক্ত পরিশিষ্ট ভায্যের মত উদ্ধত করিয়া দেবভাষার ও মনুষ্যভাষার প্রচলন দেখাইয়া আসিয়াছি। : সাধারণের কথিত ভাষাই মানুষ ভাষা। এই মানুষ ভাষা ও প্রাকৃত ভাষা * এক। অনেকে প্রাকৃত ভাষাকে বৌদ্ধ পালি ভাষার সহিত অভিন্ন মনে করেন।