পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/৬৬১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৬৫% ৷ আৰ্য্যাবর্তী। ১ম বর্ষ-৯ম সংখ্যা। : একটি স্থানে চৰ্ব্বি চীনের বাদামের তৈলের সহিত মিশ্ৰিত করিয়া স্বতের সহিত যথেষ্ট পরিমাণে ভেজাল দেওয়া হইয়া থাকে। চৰ্ব্বিবিক্রয় করিবার জন্য কতকগুলি দোকান আছে। সেখানে যথেষ্ট পরিমাণে চর্বি ও চীনের বাদামের তৈল সঞ্চিত থাকিতে দেখা যায়। আমরা শুনিয়াছি যে কলিকাতায় যে স্বতের আমদানি হয়, এই সকল স্থানে তাহার সহিত চৰ্ব্বি ও চীনের বাদামের তৈল মিশ্ৰিত করিয়া সহরে ও মফঃস্বলে ঘূত বলিয়া বিক্রীত হইয়া থাকে। কলিকাতায় বিশুদ্ধ ঘূত পাওয়া নিতান্ত দুর্ঘট। ১৯০৫ সালে মিউনিসিপাল পরীক্ষাগারে ৭০০টি ঘূত পরীক্ষিত হইয়াছিল। তন্মধ্যে ১৭৫টি খাটি বলিয়া নির্দিষ্ট হয়, আর বাকী ৫২৫টি স্বতে (অর্থাৎ শতকরা ৭৫ ভাগ স্বতে ) অল্পাধিক পরিমাণে নানাপ্রকারের ভেজাল দ্রব্য পাওয়া গিয়াছিল।” পাঠক উদ্ধত অংশ সকল হইতে বুঝিতে পরিবেন, খাদ্যবিষয়ে দেশের শিক্ষিত সম্প্রদায়ের মনোযোগদান আবশ্যক হইয়াছে। কিছুদিন পূর্বে কলিকাতায় ও মফঃস্বলে বেরিবেরি নামক যে ব্যাধির ব্যাপ্তি হইয়াছিল, অনেকের বিশ্বাস, আহাৰ্য্যে ব্যবহৃত তৈলে ব্ল্যামলেস অয়েল হইতেই তাহার উৎপত্তি। সুখের বিষয়, দেশের শিক্ষিত যুবকগণ “পেট-ভাতা” চাকরীর আশায় নিরাশ হইয়া এখন ব্যবসায়ের দিকে দৃষ্টিদান করিতেছেন। লেখক মহাশয় যেরূপ Dairy সংস্থাপনের উপদেশ দিয়াছেন-কলিকাতার উপকণ্ঠে সেইরূপ গোশালা সংস্থাপিত হইতেছে। তবে সে সকলই ব্যক্তিবিশেষের সম্পত্তি । এরূপ অনুষ্ঠান বহুব্যয়সাধ্য ; একের পক্ষে আবশ্যক মুলধন ব্যয় করা অনেক সময় সাধ্যাতীত। আশা করা যায়, অদূর ভবিষ্যতে বহুলোকের সমবেত চেষ্টায় বৃহৎ বৃহৎ গোেশালা সংস্থাপিত হইবে এবং সেই সকল হইতে বিশুদ্ধ খাদ্য দ্রব্য সরবরাহ হইয়া দেশের লোকের স্বাস্থ্যের উন্নতিবিধানে সহায়তা করিবে । ; : এ বিষয়ে গভর্ণমেন্টের অধিকতর সতর্কতা অবলম্বন আবশ্যক। “বিলাতে মাখমের সহিত মার্গারিণ (Margarine) নামক এক প্রকার চর্বি মিশ্ৰিত করিয়া ভেজাল দেওয়া হয়, কিন্তু বিলাতী আইন অনুসারে এরূপ ভেজাল মাখমকে কেহ মাখম বলিয়া বিক্রয় করিতে পারে না, ইহা মাৰ্গারিণ বলিয়া বাজারে বিক্রীত হইয়া থাকে।” এদেশেও এইরূপ বিধানের প্রবর্তন আবশ্যক।। ২ * , , পুস্তকের ১৬০-১৬১ পৃষ্ঠায় একটি মুদ্রাকার-প্ৰমাদ আছে -“গোয়ালারা ঠুরিয়া থাকে।” ইহার অর্থ হয় না। ১৬১ পৃষ্ঠায় আছে -“মহিষ গরু