পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/৯৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


eayi, SO34 নিরুদেশ যাত্ৰা । 1S বালকবালিকারা যে যাহার গৃহে চলিয়া গিয়াছে। গগনে মেঘের উপর মেঘ, পুঞ্জীকৃত হইতেছে। । বৃদ্ধ দাসীর কথা শুনিতে শুনিতে সুৰ্য্যকান্তের বোধ হইতেছিল, যেন কোন গুরু চাপে তাহার হৃদপিণ্ড নিস্পিষ্ট হইতেছিল। ইহারা কাহারা ? তিনি জীবনব্যাপী যাতনায় যাহাদিগের প্রতি দুর্ব্যবহারের প্রায়শ্চিত্ত । করিতেছিলেন,-ইহারা কি তাহারা ? যদি তাহারা হয় । সুৰ্য্যকাস্তের অন্ধকার হৃদয়ে আশার আলোক বিদ্যুদীপ্তির মত দেখা দিল। তাহার পর নির্বাপিত-বিদ্যুদালোক গগনে অন্ধকার যেমন নিবিড়তার হয়র্তাহার হৃদয়ের অন্ধকার তেমনই নিবিড়াতর হইল। যদি ইহারাই তাহারা হয়,- তবে তঁহার দুর্ব্যবহারের ফলে তাহদের কি সৰ্ব্বনাশই হইয়াছে ! সূৰ্য্যকান্ত উঠিয়া গৃহে আসিলেন ; একজন ভৃত্যকে ডাকিয়া বালকের ও তাহার জননীর পরিচয় জানিয়া আসিতে উপদেশ দিলেন । ভূত্য চলিয়া গেল। সূৰ্য্যকান্ত বসিয়া ভাবিতে লাগিলেন । ܘ বায়ুকোণে পুঞ্জীভূত অন্ধকার বিদীর্ণ করিয়া কুটিল রেখায় বিদ্যুদীপ্তি বিকশিত হইয়া উঠিল। মেঘগর্জনে ধারণী গগন কঁাপিয়া উঠিল ; সুৰ্য্যকান্তের বাতায়নে কাচকপাট ঝনঝনি করিয়া উঠিল। বাত্যা ও বৃষ্টি যেন এই সঙ্কেতের জন্য অপেক্ষা করিতেছিল। দীর্ঘকাল বদ্ধ থাকিবার পর সহসা মুক্তিপ্রাপ্ত দ্রুতগতি অশ্বের মত পবন প্ৰবল বেগে বহিতে লাগিল ; আদুরে বৃক্ষশাখা ভাঙ্গিবার শব্দ শ্রত হইতে লাগিল। সঙ্গে সঙ্গে বৃষ্টি নামিল। চারিদিক অন্ধকার-এক একবার মেঘস্তানিতসহচর বিদ্যুদালোকে প্রকৃতির ক্লিষ্ট মূৰ্ত্তি দৃষ্টিগোচর হইতে লাগিল । সুৰ্য্যকান্ত ভূত্যের প্রত্যাবৰ্ত্তন প্ৰতীক্ষা করিতে লাগিলেন। প্ৰবল ঝড়ে পথিপাশ্বাস্থ বৃক্ষশাখা ভাঙ্গিয়া পড়িতেছিল-বারিপাত হুইতেছিল; সেই দুৰ্যোগে পথে বাহির হওয়া বিপজ্জনক বলিয়া ভূত্য প্ৰত্যাবর্তনে বিলম্ব করিতে লাগিল। পরে বহু ক্ষণ অপেক্ষার পর সে কোনরূপে গৃহে আসিয়া উপনীত হইল। সুৰ্য্যকান্ত ততক্ষণ দারুণ মানসিক যাতনা ভোগ করিতেছিলেন। ভূত্য আসিয়া যাহা বলিল তাহতে বালকের জননী যে তঁহারই একমাত্ৰ সন্তান সে বিষয়ে সূৰ্য্যকান্তের আর সন্দেহ রহিল না। র্তাহার হৃদয়ে বেদনার উপর বেদনার ভার একান্ত দুঃসহ হইয়া উঠিল। আপনাকেই কন্যার সর্বনাশের কারণ জানিয়া তাহার হৃদয় আত্মাগ্লানির তুষানলে দগ্ধ হইতে লাগিল । 刘