পাতা:আশুতোষ স্মৃতিকথা -দীনেশচন্দ্র সেন.pdf/৩৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


་་ བ་ ऐ शख्iद्ध ऐाकाह दर्भ ਅ ਇਸ ਕਿ ਜਿਸ সুবিধা পান নাই। দুর্গাপ্ৰসাদের জীবন-চরিত-লেখক दलिशाश्न-‘ठे མ་ཧ་ TE ਸ ধনাৰ্থ ইনি এককালে তঁাহাকে একহাজার টাকা দেন।” বিশ্বনাথের মৃত্যুকালে দুর্গাপ্ৰসাদ বলিয়াছিলেন, যেমন করিয়া হউক। তিনি ভ্ৰাতাদিগকে প্ৰতিপালন ও শিক্ষার ব্যবস্থা করিবেন এবং তঁহার ঋণ পরিশোধ করিবেন। প্ৰথম প্ৰতিশ্রুতি পালিত হইয়াছিল এবং ভাবিয়াছিলেন, ভ্রাতারা বড় হইলে সকলে মিলিয়া পিতৃঋণ শোধ করিবেন। তাহা হইয়া উঠিল না ; সেই ঋণ র্তাহাকেই শোধ করিতে হইল। ভ্রাতারা তৎপরিবর্তে জিরেটস্থ বাড়ীর র্তাহাদের অংশ তাহাকে দলিল করিয়া লিখিয়া দিলেন ; এই বাড়ী তিনি ৮,০০০২ টাকা বায়ে নূতন করিয়া প্ৰস্তুত করিয়াছিলেন। দুর্গাপ্রসাদ খাতাপত্ৰ ঘাটিয়া দেখিলেন, তাহদের পিতৃঋণের পরিমাণ ২,০০০ টাকা। এই টাকা তিনি সম্পূর্ণ অপ্রত্যাশিতভাবে উত্তমর্শ-দিগকে দান করিলেন। তঁহারা প্ৰসন্নচিত্তে ইহার সুন্দ ছাড়িয়া দিয়াছিলেন, কারণ বহুদিন পূর্বেই তমাদি-সূত্রে ঐ ঋণের দাবী বাৰ্থ হইয়। গিয়াছিল। আমরা পাপচাত শিক্ষার কুহকে সম্পূর্ণরূপে আত্মবিস্মৃত হইয়াছি। সেকালের লোকের পিতৃ-ঋণ কখনও তমাদি হয়, এ কথা ভাদিতেই পারিতেন না। ‘মহিষাল বন্ধু’ নামক প্ৰাচীন পল্লী-গাথার নায়ক জনৈক তরুণ যুবকের পিতৃঋণ পরিশোধ করার সামর্থ না থাকাতে যেরূপ মনঃক্ষোভ পিতৃয়ে তা হইয়াছিল, তাহার একটি মৰ্ম্মস্পর্শী চিত্র উক্ত গীতে দেওয়া नशे হইয়াছে (পূর্ববঙ্গ-গীতিকা, দ্বিতীয় খণ্ড, দ্বিতীয় ভাগ) । এই ব্যক্তির পিতৃঋণ বৰ্ত্তমান আইন-অনুসারে বহু বৎসর পূর্বেই তমাদি হইয়া গিয়াছিল। কিন্তু উহা শোধ করিতে না পারিয়া যুবক বৃশ্চিক-দংশনের মত তীব্ৰ জ্বালায় দিনরাত কাটাইয়া উত্তমর্ণের পায়ে পড়িয়া সেই টাকার পরিবৰ্ত্তে, বিনা বেতনে, বহু বৎসরের জন্য তাহার নিকট দাসত্ব করিবার সৰ্ত্তে আবদ্ধ হয়। মহর্ষিদেব পিতৃঋণ পরিশোধ করিয়া একটা আশ্চৰ্য্য