পাতা:ইংলণ্ডের ডায়েরি - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/১২৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ডিভাইজেস è en নিপীড়ন, -4 or wকুল বহুল প্রচার প্রভৃতি কারণে এই বৈরাগ্যেৱা, ভাৰ । জাতীয় হৃদয়ে বদ্ধমূল হইয়া গিয়াছে। ব্ৰাহ্মসমাজে আশার শাস্ত্র ও উন্নতির শান্ত্র প্রচার করিতে হইবে। চতুর্থ কার্যটি অতি গুরুতর-দেশের ধর্মভাবকে কেবল কতকগুলি বাহিক অনুষ্ঠানে আবদ্ধ না রাখিয়া, পরোপকারে নিয়োগ করিতে হইবে। আমার ভবিষ্যতের প্রচারে এই কথাগুলি মনে রাখিতে হইবে। সায়ংকালে আমরা মিঃ নাইটের cousin-দের বাড়ীতে গেলাম। সেখানে আমাকে আমাদের দেশীয় রীতি নীতি প্ৰথাদি সম্বন্ধে, অনেক কথা বলিতে হুইল । সেখান হইতে রাত্রি সাড়ে দশটার সময় আসা গেল। ৩-৭ ৮৮। উপাসনান্তে দৈনিক লিপি লিখিয়া এবং হেমকে ও বনমালীবাবু প্রভৃতিকে পত্র লিখিয়া আহারার্থে নীচে যাওয়া গেল। অদ্য মধ্যাঞ্ছে এখানকার স্কুলগুলি দেখিতে গেলাম। একদিকে একটি বালক-বালিকা বিদ্যালয় ও এক ভাগে একটি শিশু বিদ্যালয় রহিয়াছে। বালিকাদিগের স্কুলে স্ত্রী-শিক্ষক এবং ইনফ্যান্ট স্কুলেও সব শিক্ষয়িত্রী ; বালকদিগের স্কুলে পুরুষ-শিক্ষক। স্কুলটি সুপরিচালিত বোধ হইল। এখানে ড্রিলিং, ডিসিপ্লিন ও স্টোরি ট্রেনিং সিস্টেমের প্রতি বিশেষ দৃষ্টি বোধ হইল। বালকদিগের মানসাঙ্কে বিশেষ পারদর্শিতা দৃষ্ট হইল। আর একটি জিনিস দেখিলাম, অধিকাংশ বালকই সুস্থ ও সবল । শিশুশ্রেণীতে গাল বেশ টেবো টেবো, লালবৰ্ণ, বালিকাগুলি অতি স্বন্দর। বঙ্গদেশের শিশুদিগের সহিত কি আশ্চৰ্য বৈষম্য। সেখানে একটি বিদ্যালয়ে ১ প্ৰবেশ করিয়া একটি শ্রেণীতে দাড়াইলে যদি ত্রিশটি ছেলে সেখানে বসিয়া । থাকে, দশটি সুস্থ ও বলিষ্ঠ ছেলে পাওয়া যায় কিনা সন্দেহ ; অনেক বালিকা- . বিদ্যালয়ে গিয়া দেখিয়াছি, বালিকাগুলিকে দেখিলে দুঃখ হয়। এই সকল শিশু । যে উত্তরকালে কোন বড় কাজ করিতে পারে না-তােহা বিচিত্র নয়। ] আসিবার সময় কয়েকজন ভদ্রলোকের সহিত আলাপ করিয়া আসা গেল । বাড়িতে আসিয়া মাধ্যাহিৰু আহারাস্তে অপরাধে গাড়ী করিয়া অনেক দূর ।