পাতা:ইংলণ্ডের ডায়েরি - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/১৯৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


“雅” St. ক্ৰমে ‘হ’ল’-ঘরে উপস্থিত। এই হল-ঘরটি আশ্রমজীবীদিগের জন্য নির্মিত হইয়াছে। এখানে একটি রীডিংরূম আছে ; একটি প্ৰকাণ্ড ‘হ’ল’ আছে তাহাতে বক্তৃতাদি দেওয়া যাইতে পারে ; মধ্যে মধ্যে কনসার্ট প্রভৃতিও হয়। আর একটি ছোট হল” আছে, তাহাতে ছোটখাট সভা হইতে পারে। সেই ঘরে আমার বক্তৃত হইবার কথা ছিল। আমি কাগজ পড়িতে লাগিলাম, , কাখুরানী ও তঁহার ভগিনী ঘর সাজাইতে লাগিলেন। কিয়ৎক্ষণ পরেই কাথুরানী আসিয়া আমাকে জুতার কারখানা দেখাইতে লইয়া যাইতে চাহিলেন, আমি চলিলাম। তিনি গিয়া আমাকে একজন লোকের জিন্ম করিয়া দিয়া আসিলেন। সে ব্যক্তি আমাকে ঘুরাইয়া সকল দেখাইল। কলে জুতা তৈয়ারি হইতেছে-কি কাণ্ড ! সেখান হইতে পুনরায় ‘হ’ল’-ঘর হইয়া ৰাড়িতে ফেরা গেল । মধ্যাহ্ন, আহারের পর আমার ‘জাতিভেদ’ নামক বক্তৃতার শ্ৰীমতী নাইট ষে অনুবাদ করিয়াছেন, তাহা কাখুৱানীকে পড়িতে দিয়া, আমি উপরে গিয়া বক্তৃতার জন্য প্ৰস্তুত হইতে ও পড়িতে লাগিলাম। অপরাৱে কয়জনে আবার ‘হ’ল’-ঘরের দিকে যাত্ৰা করিলাম। পথে কুমারী ক্লার্ক নামী কুমারী কবি। (১)-এর এক বন্ধুকে দেখিতে গেলাম । ক্রমে সায়ংকাল উপস্থিত, নিমন্ত্রিত ব্যক্তিগণ এক এক করিয়া আসিতে লাগিলেন। চা ও কিঞ্চিৎ জলযোগ হইল। তৎপরে আমার বক্তৃত হইল। আমি রামমোহন রায়ের জীবন-চরিত ও ব্ৰাহ্মসমাজের সংক্ষিপ্ত ইতিবৃত্ত কিছু কিছু বলিলাম। বক্তৃতায় প্ৰায় একঘণ্টার অধিককাল সকলে বসিয়া ব্লছিলেন; নানাপ্রকার প্রশ্ন করিতে লাগিলেন। গড়ের উপর অতি উত্তম হইয়া গেল । রাত্ৰে সকলে চলিয়া গেলে কাথুরানী ও আমি বাড়ি ফিরিলাম। পথে কাণু বলিলেন, শুড়ীর দোকান দেখিতে চাও তা ঐ বাড়িতে প্ৰবেশ কর। আমি । জিজ্ঞাসা করিলাম-তুমি আমার সঙ্গে ওখানে যাইবে তা ? কাণু বলিলেন- , (১) মিল কব, সম্বন্ধে ৯১ পৃষ্ঠায় পাদটীকা ব্রষ্টব্য।