পাতা:ইংলণ্ডের ডায়েরি - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/৪২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


这蝴 ইংলেণ্ডের ডায়েরি KAR ৩৫-৪-৮৮। অন্য প্রাতে উঠিয়া সাধারণ ব্ৰাহ্মসমাজের আগামী জন্মোৎসবে পড়িবার জন্য একটা প্ৰবন্ধ লিখিতে লিখিতে মনে হইল,-আমি একজন লোক, “অতি অপদার্থ; আমি কোথায় যাইতেছি। সে কথা তাহাদিগকে মনে করাইবার জন্য লেখা আমার ধৃষ্টতার কর্ম। আমি কিসের অহঙ্কার করি ? আমাকে তাহারা ভুলুক। আমি অধিক গোলমাল না করিয়া বিনয়ের সহিত চুপে চুপে প্রভুর কাজের জন্য একটু প্ৰস্তুত হই। এই ভাব মনে উদয় হওয়াতে আবার লেখাটি ছিাড়িয়া ফেলিলাম। এ ভাব ঈশ্বর স্বয়ং আনিয়া দিলেন এবং এইভাবে আমাকে ইংলেণ্ডে প্ৰবেশ করিতে ও থাকিতে হইবে। কিয়ৎক্ষণ পরেই আমরা এডেন বন্দরের সমীপে পৌছিলাম। এই আরবের উপকুল। কত কথাই স্মরণ হইল। আরব কখনও চক্ষে দেখিব-ইহা কি স্বপ্নেও জানিতাম ! মনে হইল, এখানে যাযাবর জাতিসঙ্ঘ উষ্টারোহণে ভ্ৰমণ করিত এবং নানা জাতীয় আরবদিগের বিবাদে এক সময় পূর্ণ ছিল। এডেনের প্ৰতি দৃষ্টিপাত করি।-উদ্ভিদবিহীন, প্রাণিবিহীন, বারিবিহীন পর্বতশ্রেণী ; দেখিতে চক্ষুর তৃপ্তি নাই ; ক্ষণেক কাল দেখিলে যেন তৃষ্ণার্তের ছাতি শুকাইয়া হন; কিন্তু ঐ সম্প্রদায়ের মতবাদ-বিরুদ্ধ উদার ধর্মমত প্রচারের জন্য পদচ্যুত হন। তখন তিনি খৃষ্টীয় ত্ৰিনীতিবাদ ত্যাগ করিয়া উদার একেশ্বরবাদ গ্ৰহণপূর্বক লণ্ডনে ইউনিটেরিয়ানগণের জন্য স্বতন্ত্ৰ ভজনালয় ( Theistic Church) স্থাপন করিয়া স্বীয় মতবাদ প্রচার করিতে থাকেন। ইনি একজন সরল সাধুপ্রকৃতি এবং ধাৰ্মিক সুবক্তা ছিলেন। , পিতা-ঈশ্বর (God), পুত্ৰ-ঈশ্বর (অর্থাৎ যীশুখৃষ্ট) এবং পবিত্ৰাত্মাits (Holy Ghost)-stricts ar ত্ৰিমূৰ্ত্তিতে বিশ্বাসকে খৃষ্টীয় ত্রিনীতিবাদ বলে। ইউনিটেরিয়ানগণ এই ‘একে তিন, তিনে এক ত্ৰিত্ববাদে বিশ্বাস করেন না ; তঁহাদের মতে ভগবান এক ও অদ্বিতীয় এবং যীশু একজন বিশিষ্ট সাধুব্যক্তি, মহামানব মাত্র ; কষ্টকল্পিত হোলিঘোস্ট-এর অস্তিত্বই তাহারা স্বীকার করেন না ।