পাতা:ইন্দ্রচন্দ্র.pdf/৫৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


●8 कुँठन्छब्छ । রাজকুমার উত্তর করিল, “ও একট। জিনিস, সমস্ত দিন খেটে একটু না খেলে দেহ বয় না ।” “কৈ আগেতে খেতে না ?” বলিয়া ছায়াময়ী নীরব হইল । **এখনকার চলন হয়েচে, না খেলে ভদ্রলোকে কাছে বসতে দেয় না । রাত ঢের হয়েছে এখন একটু ঘুমোও, আর বকিও না”বলিয়া রাজকুমার একটু বিরক্তিভাব প্রকাশ করিল। “ন খেলে ভদ্রলোকে কাছে বসতে দেয় না’ ভাবিয়া, ছায়াময়ী আর কোন কথাই বলিল না । এইরূপে রাজকুমার প্রায় পনর দিন কাটাইল । মাষ্টার মহাশয়ের নিকট হইতে রাজকুমার সংসার খরচের জন্য দুই চারি টাকা লইয়। আসিতেছে, সংসার ও একরূপ চলিতেছে,— রাজকুমার দিন রাত ইয়ারকী দিতেছে । - আরও পনর দিন গেল, একদিন মাষ্টীর মহাশয়কে রাজকুমার বলিল, “আমাকে যে কাজের কথা বলেছিলেন তা আজ একমাস হয়ে গেল, কৈ কিছুই তো বললেন না ?” “এতদিন আবখ্যক হয় নাই ; আজ সেটা অবিশুক হয়েচে । দেখ বাবু তোমাকে আমরা ছোট ভেয়ের মত যত্ন করি, ত৷ ভুমি মনেও অনেকটা বুঝতে পারে । কিন্তু যে কথা গুলি বলবো তা যেন কোথাও প্রকাশ না হয় । এই কথাগুলি বলিয়। মাষ্টার মহাশয় রাজকুমারের মুখের দিকে চাহিয়া রহিলেন । রাজকুমার ইেটমুখে উত্তর করিল, “আজ্ঞে ব্ৰহ্মা, বিষ্ণু, মহেশ্বর একত্র হয়ে জিজ্ঞাসা করিলে ও মুখ দিয়ে এর একবর্ণও প্রকাশ কৰে ন! ** “দেখে। সেইটা বুৰে কাজ ক’র” বলিয়। মাষ্ট্রার মহাশয় গুণমবাবুর দিকে মুখ ফিরাইয়া ইসারা করিলেন। তাম বাবুও