পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (তৃতীয় বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/২৪৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


मश्रोद्रख् ब्राङदाङ cगन्म । RRQ বঙ্গজ বৈদ্য একমূল প্ৰসুত হইলেও বহুকাল যাবৎ ভিন্ন সমাজে পরিচালিত হইয়াছে, রাজবল্লভ সম্ভবতঃ উহা ভাঙ্গিবার চেষ্টা করিতে পারেন। কিন্তু কাৰ্য্যদ্বারা তাহাও প্ৰতীত হয় না, কারণ পরবত্তী সময়ে রাজার সপ্তপুত্র ও দুই কন্যার বেলায় তাহা দৃষ্ট হয় না কেন ? রাজার বিশেষ মনোযোগ থাকিলে, রাঢ়ীয় সমাজ সহিত যে আরও দুই, চারিটীি, কাৰ্য্য সম্পন্ন না হইতে পারিত এমত নয়। এই সকল কারণ প্ৰযুক্তি আমাদের বিশ্বাস হয়। উহা একটা जांभख्रिक घछेना भांडी । ( » ) বহুদিন অতীত হয় শ্ৰীযুক্ত বাবু প্ৰতাপ চন্দ্ৰ সেন মহাশয় তাহদের বংশের আদান প্ৰদান সম্বলিত একখণ্ড বংশাবলী যাহা জাপাসাতে প্রেরণ করেন। তাহঠাতে মহারাজের চারিটি দার পরিগ্রহের কথারই স্পষ্ট উল্লেখ রহিয়াছে। উহার প্রথমটি হাতার বগগণ বংশে, দ্বিতীয়টি ইংনি নরদাস বংশে, তুর্তি ग्र िवांौदह মাধব বংশে, ৪র্থটি রাঢ় দেশে । তবে প্ৰতাপ বাবু এখন কোন সাহসে তিনটির কথা বলেন তাতার মৰ্ম্ম আমরা বুঝিতে সক্ষম হইলাম না । छेभनन शांश ििवद्माgछ्न ऊाझा সম্পূর্ণ সত্য। অদ্যাপি বোজের গো ‘উমেদপুর পরগণার মধ্যম ছোট নয়ারাণী নামে এক তালুকের পরিচয় আছে, যখন, মধাম, ছোট নয়া, এই তিন রাণী ছিলেন, তখন একজন বড় বা প্রধান রাণা অবশ্য থাকিবার কথা । এই বড় রাণী নামে অপর এক পৃথক তালুক ছিল, ৬ চন্দ্ৰ কুমার রায় মহাশয় প্রণীত রাজার জীবন চরিতে লেখা হইয়াছে ‘জ্যেষ্ঠ মহারাণীর মৃত্যুর পর | অপর তিন রাণী ঐ তালুকদ্বয় উপভোগ করিতে ছিলেন। ( জীবনচরিতের ৬২ পৃষ্ঠা )। এতগুলি প্ৰমাণ থাকা সত্ত্বেও কি আমরা বলিব যে মহারাজ রাজবল্লভ সমাজ সংস্কার জন্য মাত্র তিনটি মহিলার পাণিগ্রহণ করিয়াছিলেন । অতঃপর রাজবল্লাভের উন্নত পদারোহণের কথার আলোচনা করা হইয়াছে। SS SYYBB tBBDSDBBDDD t DYYY DBY DDD tKB DBYYY অপর বিক্রমপুর শোকাকোট নিবাসী নিমদাস বংশীয় রূপনারায়ণ দাস রাঢ়দেশে লাহাড়িপুর ৰাসী গোবিন্দ সেনের কন্যার পাণিগ্রহণ করেন । প্রথমটি আমাদের পারিবারিক বিবরণ হইতে ও দ্বিতীয়টি ঢাকা কলেজের ভূতপূর্ব এপ্রিফেসর শ্ৰীযুক্ত রাজকুমার সেন এম, এ মহাশয়ের নিকট হইতে অবগত হইয়াছি।