পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (তৃতীয় বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/৭৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ब्राखा शgeदिखुनिश्छ । QN) যে কৰ্ণগড় একদিন ধনরত্নে প্ৰভুত্বপরাক্রমে মেদিনীপুরের শীর্ষস্থান অধিকার করিয়াছিল, কিন্তু কালপ্ৰভাবে সেই কৰ্ণগড় গভীর জঙ্গলে পরিণত । যে ভগবতী মহামায়া ও দণ্ডেশ্বর মহাদেব মেদিনীপুরের প্রধানতম রাজবংশের কুলদেবতা ছিলেন, কালপ্ৰভাবে তাহারাও গভীর অরণ্যে কিছু দিবস অবস্থিতি করেন । রাজা নরেন্দ্ৰ লাল খান বাহাদুর সেই পুণ্যময় পবিত্ৰ কৰ্ণগড়ে মহাদেবী ভগবতী মহামায়া দেবীর মন্দিরসন্নিধানে ১৩০৯ সালের ৪ঠা শ্রাবণ পূর্ণিমা তিথিতে স্থানীয় প্ৰায় ১০ দশ সহস্ৰ লোককে পরিতৃপ্ত রূপে আহার করাইয়াছিলেন । ৩রা শ্রাবণ সন্ধ্যার পূর্বে রাজবাটীর কৰ্ম্মচারিবর্গ অন্যান্য অনেক লোক কর্ণগড়ে উপনীত হইয়া, আহাৰ্য্যা প্ৰস্তুতের বন্দোবস্তে প্ৰবৃত্ত হইলেন। রবি'বার ৪ঠা শ্রাবণ প্ৰাতঃসূৰ্য্যোদয়সহকারে কর্ণগড় যেন বহুকালের গভীর নিদ্রা হইতে চৈতন্যলাভ করিল। চতুর্দিক হইতে নদী স্রোতের ন্যায়। জনস্রোত প্ৰবাহিত হইতে লাগিল। এক এক দিক হইতে সহস্ৰ সহস্ৰ লোক কৰ্ণপড়ে সমবেত হইতে লাগিল। চারিদিক হইতে সঙ্কীর্তনের দল খোল করতলের ধ্বনিসহ ঘোররবে। হরিনাম ধ্বনি করিয়া মহামায়া দেবীর মন্দির সন্নিধানে সমুপস্থিত হইতে লাগিল। বেলা প্ৰায় ১০টার কিছু পূৰ্ব্বে মেদিনীপুরাধিপতি রাজা বাহাদুর সমুপস্থিত হইলেন। রাজার আগমনে যেন আনন্দস্রোত উদ্বেলিত হইল। আদ্য রাজা যশোবস্তের জন্মভূমি, ভগবতী মহামায়ার অবস্থাপিত পুণ্যপবিত্ৰ ভূমি কর্ণগড় যেন নব বলে বলীয়ান হইল। সেই দিন রাত্ৰি দুই প্রহর পর্যন্ত প্ৰায় ১০ সহস্ৰ লোক অপৰ্য্যাপ্তিরূপে নানাবিধ খাদ্য দ্রব্য দ্বারা পরিতোষারূপে আহার করান হইল। প্ৰায় রাত্ৰি দুই প্রহর কালে আহারাদি সমাপন করাইয়া রাজা মেদিনীপুরাভিমুখে প্ৰত্যাবৰ্ত্তন করিলেন । ১৬৫৬ শকে রাজা যশোবন্ত দেওয়ানি প্রাপ্ত হইয়াছিলেন, তৎপূর্বে ইনি। মেদিনীপুর রাজত্ব প্ৰাপ্ত হইয়াছিলেন। ইনি রাজ্যপ্ৰাপ্তির পরেই কবিবর