পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (তৃতীয় বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/৮২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


W सैउिझांगिक क्रिख { কৃষ্ণার প্রতি র্তাহার যে ঘুণার ভাব জন্মিয়াছিল ; তিনি তাহা দূর করিলেন। বুঝিলেন কৃষ্ণার কোনও দোষ নাই। ভাগ্যচক্রে সে সুৰ্য্যমল্লের সহিত পরিণীত হইয়াছে। ক্রমে রত্বের ক্রোধাগ্নি সুৰ্য্যমল্লের দিকে ধাবিত হইল। বিবাহের পায় হইতে কৃষ্ণা দিন দিন শুখাইয়া যাইতেছিল, তাহার হৃদয়ের বেদনা সে ও মীরা ব্যতীত আর কেহই জানিতে না । কেহ বুঝিতে পারে নাই কেন সে দিন দিন শুখাইতেছে। সূৰ্য্যমল্লের সহিত সে কথাও কহিত না, আলাপও কিরিত না, তাহার নিকট পর্যন্ত যাইতে না । সূৰ্য্যমল্ল প্ৰথম প্ৰথম কৃষ্ণাকে সন্তুষ্ট করিতে চেষ্টা করিয়াছিলেন, কিন্তু এক দিনের জন্যও তাহার চিত্তে সন্তোষ দিতে পারেন নাই। ক্রমে তিনিও তাহার সঙ্গ পরিত্যাগ করেন। কৃষ্ণা একাকিনী থাকিয়া আরও শুখাইয়া যাইতেছিল। সূৰ্য্যমল্লের মাতা কৃষ্ণাকে চির রুগ্না মনে করিয়া আবার পুলের বিবাহের আয়োজন করিলেন। রত্নসিংহের ভগিনীর সহিত সুৰ্যামল্লের আবার বিবাহ হইল । রাণা সঙ্গ ইহলোক ত্যাগ করিয়াছেন। রত্নসিংহ এক্ষণে মিবারের সিংহাসনে উপবিষ্ট। তঁাহার জ্যেষ্ঠ ভ্রাতৃদ্বয় সঙ্গের জীবিতকালেই স্বৰ্গধামে গমন করিয়াছিলেন, কাজেই সঙ্গের দেহত্যাগের পরই রত্বের মস্তকে মিবারের রাজছত্ৰ ধৃত হইল। হায় । কৃষ্ণা যদি জানিত যে, রত্ব মিবারের সিংহাসনে বসিবেন, তাহা হইলে সে নিশ্চয়ই লজ্জার বাধ ভাঙ্গিয়া পিতামাতার নিকট পুষ্করের ঘটনা বলিয়া ফেলিত, বা মীরাকে দিয়া বলাইত। কে জানিত সঙ্গের জ্যেষ্ঠ পুল্লত্বীয় অকালে জীবন বিসর্জন দিবেন ও রত্ন সিংহাসনে বসিবেন । যখন হইতে কৃষ্ণা জানিতে পারিল যে, রত্ন মিবারের রাণা হইবেন, তখন হইতে তাহার হৃদয়ের বেদনা আর ও বাড়িয়া উঠিল। কিন্তু সমস্তই অদৃষ্টের লেখা মনে করিয়া সে আপনাকে আশ্বাস্ত করিতে চেষ্টা করিত। রত্নসিংহ। কিন্তু আগুন চাপিয়া রাখিতে পারেন নাই। রাণা হইয়া তিনি যখন ক্ষমতাশালী হইয়া উঠেন, তখন তাহার প্রতিহিংসার আগুন আরও প্ৰবল হইয়া উঠে। কিন্তু BDDBD DD E BDBBBLDL LDDDDDSDBDDB DBBDBD BDBSLsBDB BBDBB DDD বন্ধ হইয়া পড়িয়াছিলেন। যখনই তাহার প্রতিহিংসার আগুন জলিয়া উঠিত,