পাতা:করিম সেখ - জলধর সেন.pdf/৯২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ty করিম সেখ ... W উদ্দেশ্য এই স্থান হইতেই বসিরের বাতীর সমস্ত সংবাদ সংগ্ৰহ कt তখন একজন বলিল “বোস, বোস, তামাক সাজা হচ্চে ” অধর তখন ভাল করিয়া বসিয়া বলিল “বসির ত মারা গেছে, ওর সংসার চোলছে কেমন কোরে ?” একজন বলিল “ওদের বড় কষ্ট গো, বড় কষ্ট। বৌটা বড় ভাল ; আমন মেয়ে হয় না। তার বাপ ভাই কতবার নিতে এসেছিল, তা গেল না, বল্লে কি সোয়ামীর ভিটে ছেড়ে যাবো না । ঐ আমাদের করিম বৌটাকে নিকে করতে চেয়েছিল, কিছুদিন খরচপত্রও চালিয়েছিল। শুনলাম বেটা কিছুতেই নিকে করতে চায় নি। নাসিব খারাপ হ’লে কি না হয়। ছোড়াটা সাহায্য কোরত ; তা সেও আজি দুইমাস হোলো পাগল হয়েছে। কত কি করা হোলো, শক্ত পরীতে নাগাল নিয়েছে, কিছুই হোলো না, এমন ধন্দ পরীরে তাকে পেয়েছে। আহা ! এমন যোয়ান ছেলে ?” অধরা দেখিল কথাটা আর একদিকে যায় যায় হইয়াছে ; তখন সে বলিল “তাই তা বড় কষ্ট । এখন বৌটার চলে কেমন কোরে ?” সেই লোকটাই উত্তর করিল, “বোঁটা আমীর মণ্ডলের বাড়ী দুবেলা রাধে । যা ভাত পায় তাই শাশুড়ী বৌয়ে খায়। আবার একটা ছেলে হয়েছে। মণ্ডলেরা বেটীকে খুব ভালবাসে, তারা একটু দুধ দেয়, তাই ছেলেটা খায়। আর বাড়ীতে তারিটা তারকারীটা যা হয় তাই হাটে বেচে যে দুচার পয়সা পায়, তাই দিয়ে কোন রকমে দিন চালায় ।”