পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/২৮২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কখনো উদার গিরির শিখরে, কতু বেদনার তমোগহবরে চিনি না যে পথ সে পথের পরে চলেছি পাগল বেশে । কতু বা পন্থ গহন জটিল, কৰ্ভু পিচ্ছল ঘনপঙ্কিল, কতু সঙ্কট-ছায়া-শঙ্কিল, বঙ্কিম তুরগম,— খর কণ্টকে ছিন্ন চরণ, ধূলায় রৌদ্রে মলিন বরণ, আশে পাশে হ’তে তাকায় মরণ, সহসা লাগায় ভ্ৰম । তারি মাঝে বাশি বাজিছে কোথায়, কঁাপিছে বক্ষ সুখের ব্যথায়, তীব্র তপ্ত দীপ্ত নেশায় চিত্ত মাতিয়া উঠে । কোথা হ’তে আসে ঘন স্বগন্ধ, কোথা হ’তে বায়ু বহে আনন্দ চিন্তা ত্যজিয়া পরাণ অন্ধ মৃত্যুর মুখে ছুটে । ক্ষ্যাপার মতন কেন এ জীবন ? অর্থ কি তা’র, কোথা এ ভ্রমণ ? ২৩৩