পাতা:কাব্যগ্রন্থ (নবম খণ্ড).pdf/২৮৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অচলায়তন স্বাধীনতাকে বাইরে থেকে ভারি একটা মজার জিনিষ বলে’ জানে—জানে না স্থির হ'য়ে বসে’ তা’র ভিতর থেকে সার পদার্থ টা বের করে নিতে হয় । কিছু দিনের জন্যে তোমার মহাপঞ্চকদাদার হাতে ওদের ভার দিলেই খানিকট। ঠাণ্ড। ত'য়ে ওরা নিজের ভিতরের দিকটাতে পাক ধরাবার সময় পাবে । পঞ্চক । চাহ'লে আমার মহাপঞ্চকদাদাকে কি এখানেই--- দাদাঠাকুর স্ট। এখানেই লহ কি । তা'র ওখানে অনেক কাজ । এতদিন ঘর বন্ধ করে অন্ধকারে ও মনে করছিল চাকটি খুব চলচে, কিন্তু চাকটি কেবল এক জায়গায় দাড়িয়েই ঘুরছিল । সে দেখ তে ও পায়নি । এখন আলোতে তা’র দৃষ্টি থলে গেচে, সে আর সে ! به بیر মানুষ নেই । কি করে আপনাকে আপনি ছাড়িয়ে উঠতে হয় সেইটে শেখাবার ভার ওর উপর । ক্ষুধা তৃষ্ণ লেভি ভয় জীবন মৃত্যুর আবরণ বিদাণ করে? আপনাকে প্রকাশ করার রহ দ্য ওর তাতে আছে । আচাৰ্য্য । আর এত চির-অপরাধীর কি লিধান করলে প্ৰভু ! দাদাঠাকুর । তোমাকে আর কাজ করতে হবে ম আচাম । তুমি আমার সঙ্গে এস। আচার্য্য । বাচালে প্রভু, আমাকে রক্ষা করলে আমার সমস্ত চিন্ত শুকিয়ে পাথর ত’য়ে গেচে—আমাকে আমারই এই পাথরের বেড় থেকে বের করে আন । ૨૭8