পাতা:কাব্যগ্রন্থ (নবম খণ্ড).pdf/৬২২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ফাঙ্কনী দাদা। আপনি কে ? আমি ঘাটের মাঝি । দাদা । আর আপনি ? আমি পাড়ার কোটাল । দাদা । তা উত্তম হ’ল—আপনাদের কিছু শোনাতে ইচ্ছা করি। বাজে জিনিষ না—কাজের কথা । মাঝি। বেশ, বেশ । আহা, বলেন, বলেন । কোটাল। আমাদের গুরু বলেছিলেন, ভালো কথা বলবার লোক অনেক মেলে কিন্তু ভালো কথা যে মরদ খাড়া দাড়িয়ে শুনতে পারে তা’কেই সাবাস । ওটা ভাগ্যের কথা কি না। তা বল ঠাকুর বল ! দাদা। আজ পথে যেতে যেতে দেখলুম রাজপুরুষ একজন বন্দীকে নিয়ে চলেচে। শুনলুম, সে কোনো শ্রেষ্ঠী, তার টাকার লোভেই রাজা মিথ্যা ছুতো করে তা’কে ধরেচে। শুনে আমি নিকটেই মুদির দোকানে বসে’ এই শ্লোকটি রচনা করেচি। দেখ বাপু, আমি বানিয়ে একটি কথাও লিখিনে। আমি যা লিখুব রাস্তায় ঘাটে তা মিলিয়ে নিতে পারবে । ঠাকুর, কি লিখেচ শুনি । দাদা । আত্মরস লক্ষ্য ছিল বলে’ ইক্ষু মরেঃভিক্ষুর কবলে। ☾Ꮬbr