পাতা:কাব্যগ্রন্থ (নবম খণ্ড).pdf/৬৪৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রাস্তায় সবাই বল্লে সে ভয়ঙ্কর । সে কেবল ফাল্গুনী মাত্র একটা মুণ্ডু, একটা হা, যৌবনের চাদকে গিলে খাবার জন্যেই তা’র একমাত্র লোভ । কিন্তু ভয় ভেঙে গেচে । মনের ভিতর বলচে সে যদি আমাকে চায় তবে আমিও বসে’ থাকব না । ফুল যাচ্চে, পাতা যাচ্চে, নদীর জল পিছন আমিও যাব । ও ভাই বাউল, তোমার একতারাতে একটা স্বর লাগাও ! রাত কত হ’ল কে জানে ? হয় ত বা ভোর হয়ে এল ৷ বাউলের গান সবাই যারে সব দিতেছে তার কাছে সব দিয়ে ফেলি । কPবার আগে চাPবার আগে আপনি আমায় দেব মেলি । নেবার বেলা হলেম ঋণী, ভিড় করেচি, ভয় করিনি, এখনো ভয় করব নারে, দেবার খেলা এবার খেলি । প্রভাত তারি সোনা নিয়ে বেরিয়ে পড়ে নেচে কুঁদে । সন্ধ্য। তারে প্রণাম করে সব সোনা ভা’র দেয়রে শুধে । ৬২৩ যাচ্চে—তা’র পিছন