পাতা:কাব্যগ্রন্থ (পঞ্চম খণ্ড).pdf/১২৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সুপ্রিয় দেবি, ডুবায়েছি তারে। জীবনের সব কথা বলেছি তোমারে, শুধু সেই কথা আছে বাকি । যেই দিন বিদ্বেষ উঠিল গজ্জি দয়াধৰ্ম্মহীন, তোমারে ঘেরিয়া চারিদিকে,—একাকিনী দাড়াইয়া পূর্ণ মহিমায়, কি রাগিণী বাজাইলে বংশীরবে যেন মন্ত্রাহত বিদ্রোহ করিল তা’র ফণা অবনত তব পদতলে । শুধু বিপ্র ক্ষেমঙ্কর রহিল পাষাণচিত্ত, অটল অন্তর । একদা ধরিয়া কর কহিল সে মোরে “বন্ধু, আমি চলিলাম দূর দেশান্তরে । আনিয়া বিদেশী সৈন্য বরুণার কূলে নবধৰ্ম্ম উৎপাটন করিব সমূলে পুণ্য কাশী হ’তে ”—চলি গেল রিক্ত হাতে অজ্ঞাত ভুবনে । শুধু ল’য়ে গেল সাথে আমার হৃদয়, আর, প্রতিজ্ঞা কঠোর । তা’র পরে জান তুমি কি ঘটিল মোর। ভিলাম যেন আমি নবজন্মভূমি যেদিন এ শুষ্কচিত্তে বরষিলে তুমি >>8