পাতা:কাব্যগ্রন্থ (পঞ্চম খণ্ড).pdf/২৩০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রথ যাও ল’য়ে দেবদূত । নাহি যাব বৈকুণ্ঠ আলয়ে । তব সাথে মোর গতি নরক মাঝারে হে ব্রাহ্মণ ! মত্ত হ’য়ে ক্ষাত্র-অহঙ্কারে নিজ কৰ্ত্তব্যের ক্রটি করিতে ক্ষালন নিম্পাপ শিশুরে মোর করেছি আপণ হুতাশনে, পিতা হ’য়ে । বীৰ্য্য আপনার নিন্দুকসমাজমাঝে করিতে প্রচার নরধৰ্ম্ম রাজধৰ্ম্ম পিতৃধৰ্ম্ম হায় অনলে করেছি ভস্ম । সে পাপ-জ্বালায় জ্বলিয়াছি আমরণ,—এখনো সে তাপ অন্তরে দিতেছে দাগি নিত্য অভিশাপ । হায় পুত্র, হায় বৎস নবনী-নিৰ্ম্মল, করুণ কোমলকান্ত, হা মাতৃবৎসল, একান্ত নির্ভরপর পরম দুবর্বল সরল চঞ্চল শিশু পিতৃ-অভিমানী অগ্নিরে খেলনাসম পিতৃদান জানি’ ধরিলি দু’হাত মেলি বিশ্বাসে নির্ভয়ে । তা’র পরে কি ভৎসনা ব্যথিত বিস্ময়ে ফুটিল কাতর চক্ষে বহ্নিশিখাতলে অকস্মাৎ । হে নরক, তোমার অনলে ミ>\ジ