পাতা:কাব্যগ্রন্থ (পঞ্চম খণ্ড).pdf/২৩৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নাট্য-কবিতা অৰ্জ্জুন-জননী সে যে ! যবে কৃপ আসি তোমারে পিতার নাম শুধালেন হাসি, কহিলেন, “রাজকুলে জন্ম নহে যার অৰ্জ্জুনের সাথে যুদ্ধে নাহি অধিকার”,— আরক্ত আনত মুখে না রহিল বাণী, দাড়ায়ে রহিলে,—সেই লজ্জা-আভাখানি দহিল যাহার বক্ষ অগ্নিসম তেজে, কে সে অভাগিনী ? অৰ্জ্জুন-জননী সে যে ! পুত্র দুৰ্য্যোধন ধন্য, তখনি তোমারে অঙ্গরাজ্যে কৈল অভিষেক । ধন্য তা’রে । মোর দুই নেত্ৰ হ’তে অশ্রাবারিরাশি উদ্দেশে তোমারি শিরে উচ্ছসিল আসি’ অভিষেক সাথে । হেন কালে করি পথ রঙ্গমাঝে পশিলেন সূত অধিরথ আনন্দ-বিহবল ৷ তখনি সে রাজসাজে চারিদিকে কুতুহলী জনতার মাঝে অভিষেকসিক্ত শির লুটায়ে চরণে সূতবৃদ্ধে প্ৰণমিলে পিতৃ-সস্তাষণে ! ক্রুর হাস্যে পাণ্ডবের বন্ধুগণ সবে ধিক্কারিল ; সেইক্ষণে পরম গরবে বীর বলি যে তোমারে ওগো বীরমণি আশীষিল, আমি সেই অৰ্জ্জুন-জননী । २२२