পাতা:কাব্যগ্রন্থ (ষষ্ঠ খণ্ড).pdf/২৩৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বিসর্জন নিবিড় জীবন্ত নীড়, শুধু একটুকু প্রাণকণিকার তরে ! হেরিবে অামারে একটি নুতন আঁখি প্রথম আলোকে, ফুটিবে আমারি কোলে কথাহীন মুখে অকারণ আনন্দের প্রথম হাসিটি । কুমারজননী মাতঃ, কোন পাপে মোরে করিলি বঞ্চিত মাতৃস্বৰ্গ হ’তে ? রঘুপতির প্রবেশ প্রভু, চিরদিন মা’র পূজা করি ! জেনে শুনে কিছু ত করিনি দোষ । পুণ্যের শরীর মোর স্বামী মহাদেবসম—তবে কোন দোষ দেখে আমারে করিল মহামায়া নিঃসন্তানশাশানচারিণী ? 轟 রঘুপতি মা’র খেলা কে বুঝিতে পারে বল ? পাষাণ-তনয়৷ ইচ্ছাময়ী,—সুখ দুঃখ তারি ইচ্ছা ! ধৈৰ্য্য ধর । এবার তোমার নামে মা’র পূজা হ’বে । প্রসন্ন হইবে শ্যামা ।

  • : a