পাতা:কাব্যগ্রন্থ (সপ্তম খণ্ড).pdf/১১৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নৈবেদ্য “ と অচিন্ত্য এ ব্রহ্মাণ্ডের লোক লোকান্তরে অনন্ত শাসন যার চিরকালতরে প্রত্যেক অণুর মাঝে হতেছে প্রকাশ । যুগে যুগে মানবের মহা ইতিহাস বহিয়া চলেছে সদা ধরণীর পর যার তর্জক্তনীর ছায়, সেই মহেশ্বর আমার চৈতন্যমাঝে প্রত্যেক পলকে করিছেন অধিষ্ঠান ;–তাহারি আলোকে চক্ষু মোর দৃষ্টিদাপ্ত, তাহারি পরশে অঙ্গ মোর স্পর্শময় প্রাণের হরষে ; যেথা চলি যেথা রহি যেথা বাস করি প্রত্যেক নিশ্বাসে মোর এই কথা স্মরি আপন মস্তকপরে সবলদ সর্ববথা বহিব তাহার গবব, নিজের নমতা ।