পাতা:কাব্যগ্রন্থ (সপ্তম খণ্ড).pdf/২৮২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভোরের বেলা পথিকেরা কি কাজে যায় হেসে— সাঝে ফেরে বিনা-বেতন সব-পেয়েছির দেশে । আঙিনাতে দুপুর বেলা মৃত্যুকরুণ গেয়ে বকুলতলার ছায়ায় বসে’ চরকা কাটে মেয়ে । মাঠে মাঠে ঢেউ দিয়েছে নতুন কচি ধানে, কিসের গন্ধ কাহার বাশি হঠাৎ আসে প্রাণে । নীল আকাশের হৃদয়খানি সবুজ বনে মেশে, যে চলে সেই গান গেয়ে যায় সব-পেয়েছির দেশে । সওদাগরের নৌকা যত চলে নদীর পরে— হেথায় ঘাটে বাধে না কেউ কেনাবেচার তরে । るQb"