পাতা:কাহিনী-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/১১২

এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
১০৯
লক্ষ্মীর পরীক্ষা


কল্যাণী


রাত হল, আজ যাও সবে ঘরে।
এই ক’টি কথা রেখাে মনে ক’রে-
আশার অন্ত নাইকো বটে,
আর-সকলেরই অন্ত ঘটে।
সবার মনের মতন ভিক্ষে
দিতে যদি হত কল্পবৃক্ষে
ঘুণ ধরে যেত- আমি তাে তুচ্ছ।
নিন্দে করলে যাব না মুচ্ছো,
তবু এ কথাটা ভেবে দেখো দিখি—
ভালাে কথা বলা শক্ত বেশি কি?
[ প্রস্থান

চতুর্থী


কী বলছিলেম ছিল সেই খোঁজে।

ক্ষীরো


না গাে না, তা নয়, এটুকু সে বােঝে-
সামনে তােমরা যেটুকু বাড়ালে
সেটুকু কমিয়ে আনবে আড়ালে।
উপকার যেন মধুর পাত্র,
হজম করতে জ্বলে যে গাত্র-
তাই সাথে চাই ঝালের চাটনি
নিন্দে-বান্দা কান্না-কাটনি।
যার খেয়ে মশা ওঠেন ফুলে
জ্বালান তারেই গােপন হুলে।