পাতা:কাহিনী-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/১২৪

এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
১২১
লক্ষ্মীর পরীক্ষা

বোকা হয়ে আমি রব নিরবধি।

লক্ষ্মী


কল্যাণী তোর অমন প্রভু-
তারেও দস্যু, ঠকাও তবু!

ক্ষীরো


অদৃষ্টে শেষে এই ছিল মোর,
যার লাগি চুরি সেই বলে চোর!
ঠকাতে হয় যে কপাল-দোষে,
তোরে ভালোবাসি বলেই তো সে।
আর ঠকার না, আরামে ঘুমিয়ো—
আমারে ঠকিয়ে যেয়ো না তুমিও!

লক্ষ্মী


স্বভাব তোমার বড়োই রুক্ষি।

ক্ষীরো


তাহার কারণ আমি যে দুঃখী!
তুমি যদি করো রসের বৃষ্টি
স্বভাবটা হবে আপনি মিষ্টি।

লক্ষ্মী


তোরে যদি আমি করি আশ্রয়
যশ পাব কিনা সন্দেহ হয়।

ক্ষীরো


যশ না পাও তো কিসের কড়ি?
তবে তো আমার গলায় দড়ি!