পাতা:কাহিনী-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/১৪৫

এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
১৪২
কাহিনী

ক্ষীরো


বলিস নে আর মুখের আগে,
নিজগুণ শুনে শরম লাগে,
বিনি !

বিনি


রানীমাসি!


ক্ষীরো


হঠাৎ কী হল,
ফোঁস ফোঁস করে কাঁদিস কেন লো?
দিনরাত আমি বকে বকে খুন,
শিখলি নে কিছু কায়দা-কানুন?
মালতী!

মালতী


আজ্ঞে!


ক্ষীরো


এই মেয়েটাকে
শিক্ষা না দিলে মান নাহি থাকে।

মালতী


রানীর বোনঝি জগতে মান্য,
বোঝ না এ কথা অতি সামান্য—
সাধারণ যত ইতর লোকেই
সুখে হাসে, কাঁদে দুঃখশোকেই।
তোমাদেরও যদি তেমনি হবে,
বড়োলোক হয়ে হল কী তবে!