পাতা:কাহিনী-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/১৮

এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
১৫
পতিতা

হেসো না মন্ত্রী, হেসো না, হেসাে না,
ব্যথায় বিঁধো না ছুরির ধার-
ধূলিলুন্ঠিতা অবমানিতারে
অবমান তুমি কোনাে না আর।
মধুরাতে কত মুগ্ধহৃদয়
স্বর্গ মেনেছে এ দেহখানি-
তখন শুনেছি বহু চাটুকথা,
শুনি নি এমন সত্যবাণী।
সত্য কথা এ, কহিনু আবার,
স্পর্ধা আমার কভু এ নহে
ঋষির নয়ন মিথ্যা হেরে না,
ঋষির রসনা মিছে না কহে।
বৃদ্ধ, বিষয়বিষজর্জর,
হেরিছ বিশ্ব দ্বিধার ভাবে,
নগরীর ধূলি লেগেছে নয়নে-
আমারে কি তুমি দেখিতে পাবে!
আমিও দেবতা, ঋষির আঁখিতে
এনেছি বহিয়া নূতন দিবা-
অমৃতসরস আমার পরশ,
আমার নয়নে দিব্য বিভা।
আমি শুধু নহি সেবার রমণী
মিটাতে তােমার লালসাক্ষুধা,
তুমি যদি দিতে পূজার অর্ঘ্য
আমি সঁপিতাম স্বর্গসুধা।